সালমানের গোপন কথা ফাঁস করলেন প্রিয়াঙ্কা

সালমানের ‘ভরত’ থেকে কেন সরে গেলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া? শুটিং শুরু হওয়ার আগে কেন শেষ মুহূর্তে আলি আব্বাস জাফরের এই সিনেমা থেকে নিজেকে কেন সরিয়ে নেন প্রিয়াঙ্কা? সম্প্রতি এমনই গুঞ্জন শুরু হয় গোটা বলিউড জুড়ে।

‘ভরত’-এ পারিশ্রমিক নিয়ে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় নাকি এই সিনেমা থেকে সরে গিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। এমন গুঞ্জনও শুরু হয় গোটা বলিউড জুড়ে। শোনা যায়, ‘ভরত’-এর জন্য ১২ কোটিতে রফাদফা করেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। কিন্তু, শুটিং শুরুর আগে প্রিয়াঙ্কার হাতে ৬.৪ কোটির চেক ধরিয়ে দেওয়া হয়। এরপরই নাকি ‘ভরত’ ছেড়ে চলে যান প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু, ‘ভরত’ থেকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সরে যাওয়ার এটাই কি আসল কারণ?

শোনা যাচ্ছে, পারিশ্রমিক নয়, শুটিং সেটে সালমন খানের বেপরোয়া জীবন এবং অনিয়মিত শুটিংয়ের অভ্যেসের জন্যই নাকি এই সিনেমা থেকে সরে গিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। জানা যায়, যে কোনও সিনেমার শুটিংয়ের সময়ই নাকি নির্দিষ্ট সময়ের পর সেখানে হাজির হন সালমন খান। শুধু তাই নয়, শুটিং শেষ হওয়ার পরও নাকি সালমনের জন্য সময় রিসিডিউল করা হয়। আর সেই কারণেই সালমনের সিনেমার ‘লিডিং লেডি’-রা বেশিরভাগ সময়ই ‘ভাইজান’ হাজির হাওয়ার আগেই শুটিং সেরে নেন। কিন্তু, সালমন খানের এই অনিয়ম একেবারেই পছন্দ হয়নি প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার। সেই কারণেই নাকি তিনি ‘ভরত’ থেকে সরে গিয়েছেন।