ধামরাইয়ে গণধর্ষনের শিকার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী

ধামরাই প্রতিনিধি: ধামরাইয়ে প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে তার বন্ধুদের দিয়ে প্রেমিকাকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের শিকার স্থানীয় মর্নিং ডিউ স্কুল এ্যান্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ধামরাই থানায় চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে ছাত্রীর বাবা। ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ ।  মঙ্গলবার ধর্ষিতাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ডাক্তারি পরিক্ষা করানো হয়েছে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার থেকে জানা গেছে, শনিবার সকালে স্কুলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় সোনিয়া (ছদ্মনাম)। ওইদিন সে আর বাড়ী ফেরেনি। পরদিন সকালে বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে সোনিয়া। পরে বিস্তারিত ঘটনা তার মা ও নানীর কাছে বলে আলামিন নামের এক ছেলে তাকে ভালবাসে। আলামিন তাকে ডেকে নিয়ে পৌরসভার পাঠানটোলা মহল্লার একটি তিনতলা ভবনের ছাদে উঠায়। এরপর তার তিন বন্ধু নিয়ল, পান্থসহ অজ্ঞাতনামা একজন হাত-পা বেধে রাতভর  পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর ধর্ষণের কথা বললে তাকে একেবারে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে রবিবার সকালে পৌরশহরের কুমড়াইল মহল্লার বাসার কাছে নামিয়ে দেয়। স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়ার পর সোমবার রাতে থানায় মামলা করতে আসে ধর্ষিতার পরিবার। ওই রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আশিকুজ্জামান জানান,আসামীদের আটকে অভিযান অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের  করা হয়েছে (মামলা নং ১৪)।