কত লাখ টাকায় বিক্রি হলেন তামিম-মুশফিক

ক্রিকেট বিশ্বে এখন প্রত্যেকটি দেশেই ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগের জোয়ার বইছে। ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর এবার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগের আয়োজন করেতে যাচ্ছে আফগানিস্তান।

আর সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুবাইয়ে এক জাঁকজমকপূর্ণ পরিবেশে দেশি-বিদেশি মিলিয়ে ৩৫০ ক্রিকেটারকে তোলা হয় আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগের (এপিএল) নিলাম। এ নিলামে রয়েছে বাংলাদেশি বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। তামিম-মুশফিক-আশরাফুল সহ ১৪ বাংলাদেশি ক্রিকেটার।

তাদের মধ্যে সবচেয়ে দামি ক্যাটাগরি ‘ডায়মন্ড’ এ রয়েছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। এরপরেই গোল্ড ক্যাটাগরিতে রয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল, মুশফিকুর রহীম এবং সাব্বির রহমান। পেসার তাসকিন আহমেদ, শাহরিয়ার নাফিস, ইমরুল কায়েস এবং এনামুল হক বিজয় রয়েছেন সিলভার ক্যাটাগরিতে।

 

আফগানিস্তান টি-টোয়েন্টি প্রিমিয়ার লীগের (এপিএল) আসন্ন আসর ৫ অক্টোবর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে গড়াবে। উদ্বোধনী আসরে শিরোপার লড়াইয়ে লড়বে পাঁচ দল। প্রথম আসরের দলগুলো হচ্ছে কাবুল, কান্দাহার, নঙ্গরহার, পাকতিয়া ও বালখ। এই পাঁচ দলের অংশগ্রহণে আরব আমিরাতের শারজাহ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এ টুর্নামেন্ট। মোট ম্যাচ সংখ্যা ২৩টি।

নিলামে বিক্রি হয়েছে বাংলাদেশি দুই ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। এরমধ্যে তামিম ইকবালকে ৭৫ হাজার ডলার দিয়ে কিনেছে নঙ্গরহার। বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ৬৩ লাখ টাকা।

তামিমকে ৭৫ হাজার ডলারে কিনলেও মুশফিকের পেছনে বেশি টাকা খরচ করতে হয়নি দলটিকে। তামিমের অর্ধেকেরও কম মুল্যে, মুশফিককে ৩০ হাজার ডলারে (২৫ লাখ টাকা) কিনেছে দলটি। এই দলের আইকন প্লেয়ার হিসেবে রয়েছেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল। আরও আছেন বেন কাটিং কিংবা মুজিব উর রহমানের মতো তারকা ক্রিকেটাররা।

এদিকে তামিম মুশফিক ছাড়াও আরো ১২ বাংলাদেশি ক্রিকেটার আছেন নিলামে। যদিও এখন কোন দল পাননি তারা। এরা হচ্ছেন— মোহাম্মদ আশরাফুল, সাব্বির রহমান, এনামুল হক, শাহরিয়ার নাফীস, ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, আবুল হাসান, সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি, তাসকিন আহমেদ, আবদুর রাজ্জাক ও সানজামুল ইসলাম।