সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছর করতে আবারও সুপারিশ

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ এবং অবসরের বয়স বর্ধিতকরণের বিষয়টি পুনরায় বিবেচনার জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। দেশের উন্নয়ন ব্যবস্থাপনার বৃহৎ স্বার্থে বিসিএস (প্রশাসন) ও বিসিএস ইকোনোমিক ক্যাডার একীভূতকরণের বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশও করে কমিটি।

সোমবার জাতীয় সংসদ ভবনে কমিটির ৩১তম বৈঠকে এ সুপারিশ করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।।

কমিটির সভাপতি এইচ এন আশিকুর রহমানের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক, এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী, র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, মো. আব্দুল্লাহ, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এবং খোরশেদ আরা হক বৈঠকে অংশ নেন।

একই কর্মস্থলে তিন বছরের অধিককাল কর্মরত রয়েছেন এমন কর্মকর্তাদের তালিকাটি সঠিক ও সুষ্ঠুভাবে প্রণয়ন করা হয়নি, তালিকাটি আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কমিটির পরবর্তী বৈঠকে পাঠানোর সুপারিশ করা হয় বৈঠকে।

বৈঠকে ভূমি ব্যবস্থাপনা ও জমি ক্রয়-বিক্রয় সংক্রান্ত, সরকারি চাকরিতে প্রবেশ ও অবসরের বয়সমীমা-সংক্রান্ত অগ্রগতি এবং উপ-সচিব হতে সচিব পর্যায়ে বাংলাদেশ সরকারের স্থায়ী পদ সংখ্যা ও বর্তমানে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের সংখ্যা-সংক্রান্ত বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

ভূমি ব্যবস্থাপনা ও জমি কেনাবেচা-সংক্রান্ত সরকারি নির্ধারিত ফি অনলাইনের মাধ্যমে জমা প্রদান এবং জমি নিবন্ধনের ফিসহ অন্যান্য বিষয়ে স্বচ্ছতা আনার সুপারিশ করা হয়।

এছাড়া তথ্য ক্যাডারে বাংলাদেশ বেতারের পদ পুনর্বিন্যাস (ক্যাডার কম্পোজিশন) ও ডিজি পদকে গ্রেড-১ এ উন্নীতকরণের প্রস্তাবটি আগামী এক মাসের মধ্যে বাস্তবায়নের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। এটি বাস্তবায়ন করে কমিটির পরবর্তী বৈঠকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।