পানিতে ভেসে উঠলো অলৌকিক হাত!

ভারতের কেরালা রাজ্যে সম্প্রতি বন্যা হয়ে গেল। বন্যায় ভেসে গিয়েছিল সব। বাড়ি-ঘর, সম্পদ তলিয়ে গিয়েছিল। সব হারিয়েও নতুন করে বাঁচার জন্য লড়াই শুরু করেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা। যখন বন্যার পানি সরে আস্তে আস্তে জেগে উঠছিল ভূমি; তখনই দেখা গেল অলৌকিক হাত।

অলৌকিক এই হাতটি দেখেই ক্ষতিগ্রস্তরা বিশ্বাস করছেন, এ যেন ভগবানের হাত। তারা বলছেন, আক্ষরিক অর্থেই তারা ভগবানকে পেয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্তরা ভগবানের হাতের দেখা পেয়েছেন। কিন্তু কথা হচ্ছে- হাতের মতোই দেখতে বস্তুটি আসলে অন্য কিছু।

কেরালার মুন্নার হচ্ছে পাহাড়ি এলাকা। মানুষ এখানে ছুটে আসে প্রাকৃতিক রূপের জন্য। তবে সেই সৌন্দর্য বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু সেখানেই জেগে উঠেছে অলৌকিক হাত। আর সেই অলৌকিক হাত দেখতে মানুষ আসে এখন।

hand-cover

জানা যায়, মুন্নারের ওপর দিয়ে বয়ে গেছে মুথিরাফুজা নদী। সেই নদীতেই অলৌকিক হাতটি দেখতে পেয়েছেন তারা। সত্যিই কি তাই? আসলে একটি পাথর এমনভাবে ক্ষয় হয়েছে যে, সেটি দেখতে মানুষের হাতের মতোই। তাতে রয়েছে পাঁচটি আঙুলও। আর বন্যার পানি সরতেই সেই পাথরের হাত জেগে উঠেছে।

ফলে সবার নজর এখন সেই হাতের দিকে। স্থানীয়রা মনে করছেন, এর পেছনে ভগবানের অবদান রয়েছে। তাদের রক্ষা করতেই সেই হাত পাঠিয়েছেন কোনো দেবতা। তবে পর্যটকদের মতে, বন্যার পানির তোড়ে ক্ষয় হওয়া পাথরটি এমন আকার ধারণ করেছে।