পরাজয়ের ভয়ে নির্বাচন থেকে পালানোর পথ খুঁজছে বিএনপি : ওবায়দুল কাদের

 পরাজয়ের ভয়ে অাগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে বিএনপি পালানোর পথ খুঁজছে বলে মন্তব্য করেছেন অাওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, গত ১০ বছরে দশ মিনিটের জন্যও বিএনপি জনগণের মাঝে সাড়া জাগাতে পারেনি। সরকারবিরোধী অান্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে তারা। একটি ব্যর্থ বিরোধীদল হিসেবে দেশবাসী চিরদিন বিএনপিকে মনে রাখবে।

উত্তরবঙ্গ ট্রেনযাত্রা শেষে রোববার সকালে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অায়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের একথা বলেন।

ট্রেনযাত্রায় অাওয়ামী লীগের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, দেশবাসী বিএনপিকে প্রত্যাক্ষাণ করেছে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে অাগামী নির্বাচনেও জনগণ নৌকাকে জয়ী করবে। বিএনপি বুঝে গেছে জনগণ তাদের সঙ্গে নেই। তাই তারা দেশে একটি অস্থির পরিস্থিতি তৈরির চক্রান্ত করছে।

খালেদা জিয়াকে বন্দি রেখে নির্বাচন করতে গেলে তা প্রতিহত করা হবে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম অালমগীরের এই বক্তব্যের জবাবে কাদের বলেন, খালেদা জিয়া কারাগারের বাইরে থাকাকালীন অনেকবার অান্দোলনের ডাক দিয়েছেন। কিন্তু তিনি সাড়া পাননি। সারাদেশে নির্বাচনী উৎসব শুরু হয়েছে। নির্বাচন প্রতিহত করার ক্ষমতা বিএনপির নাই। কাদের বলেন, অামাদের কাছে খবর অাছে, ২০১৪ সালের মত নাশকতার চক্রান্ত করছে বিএনপি। দেশবাসী তাদের প্রতিহত করবে। অাওয়ামী লীগের ট্রেনযাত্রায় জনতার ঢল থেকে বিএনপির মন খারাপ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন কাদের।

নির্বাচনকালীন সরকারের অাকার অনেকটা ছোট হবে উল্লেখ করে কাদের বলেন, সংসদে প্রতিনিধিত্ব দলের বাইরে কাউকে নির্বাচনকালীন সরকারে রাখা হবে কী হবে না, এটি কেবল প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার।

সংবাদ সম্মলনে অারও উপস্থিত ছিলেন, অাসাদুজ্জামান নুর, জাহাঙ্গীর কবির নানক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, অাহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে অাওয়ামী লীগ নেতারা শনিবার সকালে রাজধানী থেকে উত্তরবঙ্গের উদ্দেশ্যে ট্রেনযাত্রা করেন। টাঙ্গাইল, ঈশ্বরদী, নাটোর, নওগা, জয়পুরহাট, পার্বতপুর, সান্তাহার, সৈয়দপুর, নীলফামারীতে পথসভা করেন অাওয়ামী লীগ নেতারা।