শাহজালালে ৫৯০ কার্টন আমাদানি নিষিদ্ধ বিদেশি সিগারেট জব্দ

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে পৃথক ঘটনায় ৩৫ লাখ ৪০ হাজার টাকার ৫৯০ কার্টন বিদেশি বিভিন্ন ব্রান্ডের আমদানি নিষিদ্ধ সিগারেট জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর।

শনিবার ভোর ও শুক্রবার রাতে এসব সিগারেট জব্দ করা হয়। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি।

শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচালক ড. সহিদুল ইসলাম বলেন, শনিবার ভোর ৫ টার দিকে কুয়েত থেকে ছেড়ে আসা একটি ফ্লাইট (কেইউ ২৮৩) ঢাকায় পৌছায়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৩নং ব্যাগেজ বেল্ট থেকে ৪টি লাগেজ মালিকবিহীন অবস্থায় আটক করা হয়। সেগুলো কাস্টমস হলে নিয়ে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে খুলার পর ৪২০ কার্টনে থাকা ৮৪ হাজার শলাকা আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশি সিগারেট জব্দ করা হয়। সিগারেটগুলো ৩০৩ ও ব্ল্যাক ব্র্যান্ডের। যার মূল্য ২৫ লাখ ২০ হাজার টাকা।

সহিদুল ইসলাম আরো জানান, এর আগে শনিবার রাতে একই বিমানবন্দর থেকে ১৭০ কার্টনে থাকা ৩৪ হাজার শলাকা বিদেশি সিগারেট জব্দ করা হয়। যার মূল্য ১০ লাখ ২০ হাজার টাকা। সিগারেটগুলো দুবাই থেকে ছেড়ে আসা ইকে ৫৮৪ ফ্লাইটে ২টি লাগেজে করে ঢাকায় আনা হয়েছে। এগুলো ইজি, ডানহিল, মন্ড ৩০৩ ও ব্ল্যাক ব্র্যান্ডের।

সহিদুল বলেন, সিগারেটের প্যাকেটের গায়ে বাংলায় ধূমপানবিরোধী সতর্কীকরণ লেখা ছাড়া বিদেশি সিগারেট আমদানি করা যায় না।সিগারেটের উপর উচ্চ শুল্ক (প্রায় ৪৫০%) পরিহারের জন্যই এসব সিগারেট আনা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। জব্দকৃত সিগারেটগুলোর বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।