আশুলিয়ায় চাকমা পোশাক শ্রমিক অপহরণ, লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

আশুলিয়া প্রতিনিধি : আশুলিয়া থেকে নিউটন চাকমা নামে এক পোশাক শ্রমিক অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। অপহরণকারিরা অপহৃতের স্ত্রীর নিকট ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছে। ঘটনায় থানায় সাধারণ ডাইরি (নং-৬৩৮) হয়েছে।
গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৬ টায় আশুলিয়ার বাইপাইল স্ট্যান্ডে একটি সাদা মাইক্রোতে টঙ্গী যাওয়ার কথা বলে নিউটন চাকমাকে তুলে নিয়ে যায় অপহরণকারিরা। পরে তার ব্যবহৃত মোবাইলে অপহরণকারিরা ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। না দিলে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় অপহরণকারিরা। ঘটনায় স্ত্রী সিমা চাকমা ৫ হাজার টাকা একটি বিকাশ একাউন্টে প্রেরণ করেন। বাকি টাকার জন্যে সময় নেন।
অপহৃত নিউটন রাঙ্গামাটি জেলার জোড়াছড়ি থানাধীন চুমাচুমি এলাকার অনিল কুমার চাকমার ছেলে। সে গাজীপুর জেলার টঙ্গী থানাধীন একটি পোশাক কারখানায় চাকুরি করেন। আশুলিয়ার ডেন্ডাবর পল্লীবিদ্যূৎ এলাকার শরীফুল ইসলামের বাড়িতে স্বামী-স্ত্রী ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করতো। তার স্ত্রী সিমা আক্তার ডিইপিজেড পোশাক কারখানার শ্রমিক।
এ ব্যাপারে অপহৃতের স্ত্রী সিমা চাকমা বলেন, প্রতিদিনের ন্যায় তার স্বামী নিউটন চাকমা গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় কাজে যোগদানের জন্যে বাসা থেকে রওয়ানা হয়ে সকাল সাড়ে ৬টায় আশুলিয়ার বাইপাইল বাসস্ট্যান্ডে পরিবহণের জন্যে অপেক্ষা করেন। এসময় একটি সাদা মাইক্রো টঙ্গী যাবে বলে যাত্রী ডাকাডাকি করে। তাড়াতাড়ি যাওয়ার জন্যে ওই মাইক্রোতে ওঠেন নিউটন। গাড়িতে ওঠার পর তার হাত, মুখ ও চোখ বেঁধে তাকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যান। তার ব্যবহৃত মোবাইল দিয়ে ফোন করে বিকাশে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। অন্যথায় তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় অপহরণকারিরা। ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেন তিনি। এছাড়া একটি বিকাশ নম্বরে ৫ হাজার টাকা দিয়ে বাকি টাকার জন্যে সময় নেন।
এদিকে অপহৃতকে উদ্ধারের জন্যে পুলিশ অভিযান রয়েছে বলে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রিজাউল হক জানিয়েছেন।