নির্বাচনকালীন সরকারের আকার নির্ধারণ করবেন প্রধানমন্ত্রী: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনকালীন সরকারের আকার কেমন হবে তা নির্ধারণ করবেন প্রধানমন্ত্রী। কারা থাকবে, কখন হবে, তা বলার একমাত্র অধিকার শেখ হাসিনার। কবে নির্বাচন হবে সেই তারিখ ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন। এর বাইরে কেউ এ বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত দিতে পারবে না।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে রাজশাহী আওয়ামী লীগের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

দিনাজপুর ও বরগুনায় নিজ দলীয় দুই সংসদ সদস্যকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের একটি অংশ। এ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এভাবে অবাঞ্ছিত করার এখতিয়ার কারো নেই।

তিনি বলেন, কারো অভিযোগ থাকলে সেটি কেন্দ্রে দায়িত্বশীল যুগ্ম সাধারণ সম্পাদককে জানাতে হবে। আর কোথাও জানিয়ে কাজ না হলে, আমাকে বলতে হবে। এটি কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না।

মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় দল আওয়ামী লীগ। শুতরাং আমাদের ছাড়া জাতীয় ঐক্য হয় কি করে? কাজেই এ দলকে বাদ গিয়ে কোনো জাতীয় ঐক্য সম্ভব নয়। জাতীয় ঐক্যের নামে যা করা হচ্ছে, তা সাম্প্রদায়িক মেরুকরণ ছাড়া কিছু নয়।

দলীয় মন্ত্রী-এমপিদের নিজস্ব সীমায় থেকেই কথা বলা ভালো বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।