ভ্রু কাঁপানো সেই প্রিয়ার বিরুদ্ধে মামলা খারিজ

ভ্রু কাঁপানো সেই প্রিয়ার প্রকাশের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা খারিজ করে দিয়েছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। মাস কয়েক আগে একটি গানের দৃশ্যে তার চোখের ভঙ্গিমা ভাইরাল হয়। কিন্তু, এই মামলার আবেদনকারীদের মনে হয়েছিল, এমনটা করা উচিত নয়। তাই হায়দরাবাদ থানায় মামলা করেন।

একটি সিনেমার গান ‘উরু আদার লাভ’-তে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা হয়েছে এমন অভিযোগ তুলে এক মুসলিম যুবক ও তার বন্ধুরা মামলটি করেছিলেন।

শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে মামলার শুনানিকালে প্রধান বিচারক দীপক মিশ্র মামলার অভিযোগকারীকে ভর্ৎসনা করে বলেন, ‘কেউ একটি ছবিতে গান করল, আর সেটার বিরুদ্ধে আপনি মামলা ঠুকে দিলেন। আপনার কি আর কোনো কাজ নেই?’

পুলিশে দায়ের হওয়া মামলায় বলা হয়েছিল ইচ্ছাকৃতভাবে ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত দেয়ার জন্যই এমন অঙ্গভঙ্গি করা হয়েছে। তবে আদালত সেই যুক্তি খারিজ করে দিয়েছেন।

আদালতে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘এই গানে মহানবী (স.) এবং তার প্রথম স্ত্রী খাদিজার প্রেমের প্রশংসা করা হয়েছে। অভিযোগকারী ভুল বুঝে মামলাটি করেছেন। এছাড়া এটি উত্তর কেরালার মালাবর অঞ্চলের মুসলিমদের গাওয়া একটি জনপ্রিয় গান।’

এ সময় অভিযোগকারী উচ্চ আদালতে তর্ক জুড়ে দিয়ে বলেন, ‘গানের মধ্যে চোখের টিপ্পনি দেয়া ইসলাম সমর্থন করে

অভিযোগকারীর দাবি, যে গানের তালে তালে এমন ঘটনা ঘটছে সেটি কেরালার মালাবার এলাকার মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষ যুগ যুগ ধরে গেয়ে আসছেন। আর সেটিকে বিকৃত করা হয়েছে গানে।

শুনানিতে প্রিয়ার আইনজীবী আদালতকে বলেন, বিষয়টির ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৯ ফেব্রুয়ারি ইউটিউবে মুক্তি পায় প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়া অভিনীত মালায়ালাম ছবি ‘অরু আদার লাভ’র ‘মানিকেয়া মালারায়া প্রভি’ শিরোনামের একটি গান। যেখানে চোখের যাদুতে সবার নজর কাড়েন প্রিয়া। এরপরই প্রিয়া ও তার সহশিল্পী এবং নির্মাতার বিরুদ্ধে হায়দ্রাবাদের ফলকনামা পুলিশ স্টেশনে মামলা দায়ের করেন এক মুসলিম যুবক ও তার বন্ধুরা।