বিচার বিভাগকে অবশ্যই তার অতীত ভুলের সংশোধন করতে হবে: আনোয়ার ইব্রাহীম

মালায়শিয়ার প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা আনোয়ার ইব্রাহীম দেশটির একজন সাবেক সিনিয়র বিচারপতির বেআইনি রায়ের সংশোধন চেয়ে মালায়শিয়ার বিচার বিভাগের কাছে আবেদন জানিয়েছেন।

‘যদি এখানে কোনো ন্যায়বিচারের মনোভাব এবং বিচার বিভাগের নিজস্ব আদি এখতিয়ার সূলভ বেআইনি রায়ের ভুল সংশোধনের কোনো ইচ্ছা থেকে থাকে তবে বিচার বিভাগ প্রধানের তাৎক্ষণিকভাবে কার্যক্রম গ্রহণ করা দরকার।’

রবিবার পিকেআরের এই নেতার উপর রচিত Anwar Returns: The Final Twist নামের বই এর মোড়ক উন্মোচনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের এসব কথা বলেন।

সাবেক ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহীম বলেন, তার বিরুদ্ধে পূর্বে আনীত সাজানো যৌন কেলেঙ্কারীর মামলার কোনো বিচারকের বিরুদ্ধে তিনি কোন কার্যক্রম গ্রহণ করতে আগ্রহী নন।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালে সরকার কর্তৃক তার বিরুদ্ধে সাজানো যৌন কেলেঙ্কারীর মামলায় তাকে সাজা দেয়ার ব্যাপারে সেপ্টেম্বরে শুনানি হতে যাওয়া আপিল বিভাগই সিদ্ধান্ত নিবেন।

২০১৭ সালের জুলাই মাসের ৯ তারিখে আনোয়ার সাজানো যৌন কেলেঙ্কারীর মামলায় তার বিরুদ্ধে সাজা ঘোষণাকে তিনি সুষ্ঠু বিচারের মাধ্যমে হয়নি আখ্যা দিয়ে এর বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করেন।

এর আগে আনোয়ার বলেছিলেন, এমনকি মালায়শিয়ার রাজা ইয়াং ডি-পেরতুয়ান আগং সুলতান মুহাম্মাদ, আনোয়ারের প্রতি অবিচার হয়েছে বলে তাকে জানান।

‘যখন আমি সম্মানিত রাজার সাথে দেখা করতে যাই, তিনি আমাকে পুরোপুরি ক্ষমা করে দিয়েছিলেন- তিনি এটা করেছিলেন এ জন্য নয় যে তিনি এমনটি করতে ক্ষমতা প্রাপ্ত নয় বরং এজন্য যে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা তার দায়িত্বের মধ্যে পড়ে।’

আনোয়ারকে চলতি বছরের মে মাসের ১৬ তারিখে দেশটির রাজা ক্ষমা ঘোষণা করেন, এবং এই কারণে বর্তমান সরকার দেশটির কোন আদালত বা অন্য কোন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাকে কারো বিরুদ্ধে প্রহসনমূলক বিচার বা কারো অধিকার নষ্ট হতে পারে এমন কাজ হতে বিরত রাখতে বাধ্য হয়।

তাদের পূর্বের তিক্ত সম্পর্ককে ভুলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদের সাথে কাজ করাকে নিজেদের জাতিকে রক্ষা করার একই ইচ্ছার প্রতিফলন বলে মন্তব্য করেন আনোয়ার।

‘জনগণ আমার কাছে জানতে চায় কেন আমি ড. মাহাথিরের সাথে একসাথে কাজ করতেছি’
‘এটা এজন্য যে আমি আমার দেশকে বিশ্বাস করি এবং মালায়শিয়াকে রক্ষা করার জন্য আমাদের অবশ্যই ধৈর্য এবং ক্ষমার মানসিকতা থাকতে হবে।’- আনোয়ার ইব্রাহীম এমনটি জানান।

সূত্রঃ দ্যা স্টার নিউজ।