মহাসড়কে মৃত্যুর মিছিল রোধে তদন্ত কমিটি গঠন : সাভারে সেতু মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার : সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ঈদ এবং ঈদ পরবর্তী দেশের কয়েকটি স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় অনেকের প্রাণহানী হয়েছে। তাই মহাসড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে এবং মানুষের মৃত্যুর মিছিল রোধ করতে দশ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এবিষয়ে সড়ক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং তদন্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর বাস্তব সম্মত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। গতকাল রোববার দুপুরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের হেমায়েতপুর ইন্টারসেকশন আলোকিতকরণ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
দুটি গাড়ির রেষারেষি থেকেই কেবল দূর্ঘটনা ঘটেনা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, মোটরসাইকেল কিংবা ছোট যানবাহনের সাথে বড় গাড়ির ধাক্কা লাগলেই আরোহীরা মারা যায়। মহাসড়কে ছোট যান নিষিদ্ধ করা হলেও ঈদের সময় ফাঁক ফোকর দিয়ে তারা বাড়তি সুবিধা নেয়।
বিএনপির আন্দোলনের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন ২০১৮ সালকে যদি বিএনপি ২০১৪ সাল মনে করে থাকে তাহলে তারা আরও বড় এবং মারাত্মক ভূল করবে। এবার যদি সন্ত্রাস সহিংসতা হয় বাংলাদেশের মানুষ তা প্রতিহত করবে।
মন্ত্রী আরো বলেন,গতবার বিএনপিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে অফার করা হয়েছিলো তারা সেটি ঘৃনা ভরে প্রত্যাখান করেছে। এখন তাদের নতুন করে আমন্ত্রন জানানোর কোন সুযোগ নাই।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-১৯ আসনে সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমান, সাভার উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজিব , তেঁতুলঝোড়া ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর সহ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।
সম্প্রতি এক কোটি টাকা ব্যয়ে ৬’শ মিটারের মধ্যে ৬০টি স্ট্রীট লাইট স্থাপন করায় সন্ধ্যার পর সাভারের হেমায়েতপুরে আলোকিত পরিবেশ তৈরী হয়েছে। এলাকার লোকজন এখানকার নান্দনিক দৃশ্য অবলোকন করে সিঙ্গাপুরের সাথে তুলনা করছে। হেমায়েতপুর বাসষ্ট্যান্ডে ফুট ওভারব্রীজ নির্মান, স্ট্রীট লাইট স্থাপন এবং রাস্তা ৮ লেনে উন্নিত করে সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করায় এলাকাবাসী সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে অভিনন্দন জানান ।