খুশকি দূর করবে আদা

খুশকির সমস্যায় ভুগছেন? অ্যান্টি-ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহারে কিছু সময়ের জন্য খুশকি দূর হলেও কিছুদিন পর ফিরে আসে আবার। চিরস্থায়ীভাবে খুশকি দূর করতে চাইলে চুলচর্চা করুন আদা দিয়ে। খুশকি দূর করার পাশাপাশি এটি চুলের বৃদ্ধি বাড়াতেও সক্ষম।

আদা ও নারকেল তেল

১ টেবিল চামচ আদার রসের সঙ্গে ১ চা চামচ কুসুম গরম নারকেল তেল মেশান। মিশ্রণটি চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে লাগান। ৪০ মিনিট অপেক্ষা করে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল। সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করতে পারেন এটি।
লেবু ও আদা
১ টেবিল চামচ আদার রসের সঙ্গে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মেশান। মিশ্রণটি চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত ভালো করে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। কুসুম গরম পানি ও শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
আদা ও গোলাপজল
সমপরিমাণ আদার রস ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি পানিতে মিশিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে কয়েকবার ব্যবহার করুন এটি।
পেঁয়াজ ও আদা
পেঁয়াজ ও আদা কুচি করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। পেস্টটি চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে লাগান। আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
আপেল সিডার ভিনেগার ও আদা
আদা গুঁড়ার সঙ্গে পরিমাণ মতো আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। পেস্টটি চুলের গোড়ায় ২০ মিনিট লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।
চুলের যত্নে আদা ব্যবহার করবেন কেন?

  • আদায় রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান যা মাথার ত্বকের চুলকানি দূর করে।
  • খুশকির জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়া দূর করেত পারে আদার রস।
  • চুল পড়া বন্ধ করে।
  • চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ফলে চুল বাড়ে দ্রুত।
  • এতে থাকা ফ্যাটি অ্যাসিড চুল ঝলমলে ও সুন্দর করে।