উপনির্বাচনে এমপি হচ্ছেন আনোয়ার ইব্রাহীম, মালায়শিয়ার ক্ষমতার রদবদলের ইঙ্গিত!

: মালায়েশিয়ার রাজনৈতিক দল (পিকেআর) এর প্রধান আনোয়ার ইব্রাহীম উপনির্বাচনের মাধ্যমে আবার ফেডারেল পার্লামেন্টের দেওয়ান রাকায়েত পদে ফিরতে আগ্রহী হয়েছেন। ফলে তিনি মালায়শিয়ার সংসদীয় আসন ‘পিরাক’র উপর দৃষ্টি রেখেছেন বলে একটি সূত্রের বরাত দিয়ে খবর ফ্রি মালয়েশিয়া টুডে।

এক সূত্রের বরাত দিয়ে পত্রিকাটি আরো জানায়, সাবেক বিরোধী দলের এই নেতা পিরাকের সংসদীয় আসনের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন যেখানে বর্তমানে এই আসনে বারিসান ন্যাশনাল দলের হয়ে একজন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রয়েছেন।

‘ওই সংসদ সদস্য সম্প্রতি আনোয়ার ইব্রাহীমের সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন এবং তিনি তার পদ ছেড়ে দেবেন বলে আনোয়ারকে আশ্বস্ত করেন। এবং আসন্ন পিকেআরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য অনুষ্ঠিত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ব্যাপারে ইব্রাহীমের প্রতি অনুরোধ জানান।’ বলে এফএমটি নিউজকে সূত্রটি জানায়।

কেন এই সংসদ সদস্য তার আসন থেকে পদত্যাগ করবেন তা এখনো জানা যায়নি।

অন্যদিকে ২৪ জুনে পিরাকের আরেক সাংসদ নূর আজমী বাগান সেরাই উমনো রাজনৈতিক দল থেকে বের হয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন এবং পাকতান হারপানকে সমর্থন করার ঘোষণা দেন।

তিনি জানান, তাকে উমনো বাগান সেরাই থেকে নির্বাসিত করা হয়েছিল এবং তার বিগত ৫ বছরের সাংসদীয় জীবনে দলটির নেতারা তার নেয়া কোন সিদ্ধান্ত মেনে নেয়নি।

নূর আজমী জানান যদিও তিনি একজন স্বতন্ত্র এমপি, তার পরেও তিনি ড. মাহাথির মোহাম্মদের দলে যোগদান করার ব্যাপারে মনস্থির করেছেন।

উমনো বাগান সেরাই এর আরেক রাজনৈতিক সাইয়েদ আবু হোসাইন বলেন, তিনিও উমনো বাগান সেরাই থেকে বের হয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন।

সূত্র জানায় যে, আনোয়ার ইব্রাহীম হয়তো পিরাকের সংসদীয় আসনে জিততে পারেন যদিও বুকইট গানটানং নামের আরেক রাজনৈতিক দল সেখানে স্বল্প জনসমর্থন নিয়ে নির্বাচন করবে।

‘উপনির্বাচনে জয়লাভ করা আনোয়ারের জন্য কোনো সমস্যা হবে না কারণ পাকতান হারপান পুত্রাজয়া এবং পিরেক অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’-সূত্রটি এমনটি যোগ করে।

আনোয়ার ইব্রাহীম বলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ব্যপারে তাড়াহুড়ো করছেন না। তিনি আরো জানান, দেওয়ান রাকায়েতে যোগ দেয়া আমার প্রধান লক্ষ্য।

মাহাথির মোহাম্মদকে সমর্থন দেয়ার জন্য আহ্বান না করে তিনি আনোয়ার জানান পাকতান হারপানের চিন্তা ভাবনা অনুযায়ী নিকট ভবিষ্যতে তার দেওয়ান রাকাইয়াতে যোগদানের মাধ্যমে ক্ষমতার পরিবর্তন হতে পারে।

‘যদি আমি সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই, তবে সেটি হবে সরকারের সমর্থনকারী হিসাবে সেখানে যাওয়া। আমরা এখনো সবকিছু নিরীক্ষা করছি। যদি আপনি প্রক্রিয়াটির উপর দৃষ্টি দেন তবে দেখবেন, আমাকে ক্ষমতায় বসানোর জন্য অবশ্যই সংসদে যোগদানের মাধ্যমে আসতে হবে।’-আনোয়ার ইব্রাহীম এমনটি জানান।

উপনির্বাচনে তার অংশগ্রহণ কি স্বাভাবিক নাকি কৃত্রিম প্রক্রিয়া এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে যেন জনগণ যাতে দ্রুত মারা যায় সে প্রার্থনা না করতে হয়।’

সূত্রঃ ফ্রি মালায়শিয়া টুডে।