আশুলিয়ায় শ্রমিক কলোণীতে অগ্নিকান্ড : ১৪টি কক্ষ ভস্মিভুত

আশুলিয়া ব্যুরো : আশুলিয়ায় একটি শ্রমিক কলোণীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওই শ্রমিক কলোণীর ১৪টি কক্ষ ভস্মিভুত হয়েছে। এসময় কক্ষে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, ফ্রিজ-টিভি ও ভৌত অবকাঠামো সহ প্রায় ৩৫ লাখ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন কলোণীর মালিক।

বুধবার সকাল ১০টায় আশুলিয়ার পশ্চিম গুমাইল (বাতান) এলাকায় এসহাক মন্ডলের মালিকানাধীন একটি শ্রমিক কলোণীতে এ ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্থ ভাড়াটিয়া শ্রমিকরা জানান, সকালে ওই কালোনীতে থাকা সকলেই কক্ষগুলো তালাবদ্ধ রেখে পার্শবর্তী হামীম-গ্রুপের পোশাক কারখানায় কাজে যোগদান করেন। তাদের কলোনীতে আগুনের সংবাদ পেয়ে তারা কারখানা থেকে দ্রুত বাসায় চলে আসেন। এতক্ষণে তাদের প্রতিটি কক্ষে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, টিভি-ফ্রিজ, আসবাবপত্র, কাপড়-চোপড়সহ সমস্ত মালামাল আগুনের ভয়াবহ লেলিহান শিখায় ভস্মিভুত হয়ে যায়। কোন মালামালই উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। শুধু অপলক দৃষ্টিতে তাদের কষ্টার্জিত মালামাল পুড়ে যেতে দেখেছেন।

কান্নাজড়িত শ্রমিকরা আরো জানায়, মঙ্গলবার তারা সকলেই কারখানা থেকে বেতন পেয়েছিল। বেতনের সমস্ত টাকা কক্ষে রেখেই গতকাল তারা কাজে যোগদান করেছিল। কিন্তু আগুন তাদের সবকিছু কেড়ে নিয়েছে। পড়নের এক কাপড় ছাড়া তাদের আর কিছুই অবশিষ্ট নেই।

কলোনীর মালিক এসহাক মন্ডল জানান, কলোনীতে আগুন লাগার খবর পেয়ে তিনি এসেছেন। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় তার নির্মিত ওই শ্রমিক কলোনীর ১৪টি কক্ষ ভস্মীভূত হয়েছে। শ্রমিকদের যাবতীয় মালামাল ছাই হয়েছে। এতে কলোনীর ভৌত অবকাঠামোসহ শ্রমিকদের প্রায় ৩৫ লাখ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত সর্বহারা শ্রমিকদের আগামী বেতন না পাওয়া পর্যন্ত থাকা ও খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা তিনি করবেন। সেই সাথে সাময়িক পোশাক পরিচ্ছদ দিয়ে সহযোগিতা করবেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে, আগুনের সূত্রপাত কিভাবে হয়েছে সে সম্পর্কে বলা যাচ্ছেনা। তবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শকসার্কিট থেকে এ আগুন লাগতে পারে বলেও জানান কলোনীর মালিক এসহাক মন্ডল।

ডিইপিজেড ফায়ারসার্ভিসের সিনিয়র ষ্টেশন অফিসার আব্দুল হামিদ জানান, খবর পেয়ে ফায়ারসার্ভিসের দুটি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে প্রায় এক ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। আগুনে ওই কলোনীর ১৪টি কক্ষ ও কক্ষে থাকা সমস্ত মালামাল পুড়ে গেছে।

আগুনের সুত্রপাত সম্পর্কে জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে অগ্নিকান্ডের এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। এছাড়া আগুনে কি পরিমান ক্ষতি হয়েছে তা তদন্ত সাপেক্ষে জানানো হবে বলেও জানান তিনি।