রাবির ভর্তি পরীক্ষা হবে MCQ পদ্ধতিতে

রাবি প্রতিনিধি:
রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের (২০১৮-১৯) শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় লিখিত পরীক্ষার পরিবর্তে আবারো এমসিকিউ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন।

সোমবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনন্দ কুমার সাহা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিরি আরও জানান, আগামী ৩ সেপ্টেম্বর আবেদন শুরু হয়ে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই সেশনে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

অধ্যাপক সাহা বলেন, এমসিকিউ পদ্ধতিতে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। ইউনিট থাকবে ৫ টি এবং পূর্বে ইউনিট প্রতি ১৬ হাজার শিক্ষার্থীর বলা হলেও সর্বোচ্চ ৩২ হাজার শিক্ষার্থী একটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় বসতে পারবেন। এদিকে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ভর্তির পরীক্ষার আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা এবং পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ২২ ও ২৩ অক্টোবর।

প্রশ্নের মান বন্টনের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পূর্বে যেভাবে প্রশ্ন করা হতো সেভাবেই থাকবে।  এর আগে বিশ^বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান বিশ^বিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুস সোবহান। তবে সোমবার বিশ^বিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে এমসিকিউ পদ্ধতির বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়।

এদিকে আসন সংখ্যা বাড়বে জানিয়ে বিশ^বিদ্যালয় একাডেমিক শাখার উপ রেজিস্ট্রার এ এইচ এম আসলাম হোসেন জানান, দুইটি বিভাগে আসন সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। সেখানে ম্যাটেরিয়ালস সায়েন্স ও ব্যাংকিং ইন্সুরেন্স বিভাগে ১০ টি করে আসন বেড়েছে এবং ব্যবসা ও বানিজ্য আইন বিভাগ যেখানে ৫০ টি আসন রয়েছে। এই হিসাবে মোট আসন বাড়বে ৭০ টি।

তিনি আরও জানান, এবছর এমসিকিউর পাশাপাশি ২য়বার পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ রাখা হয়েছে। তবে আগামী বছর থেকে ২য়বার ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ থাকবে না এবং লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।#