যে ইস্যুতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মেলানিয়া

ফুলকি ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশটির বাস্কেটবল তারকা লেব্রন জেমসকে নিয়ে ঠাট্টা করার কয়েক ঘণ্টার মাথায় তার (জেমস) প্রশংসা করেছেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। এর আগে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অবশ্য ট্রাম্পের সমালোচনা করেন জেমস। খবর বিবিসি, গার্ডিয়ান।

 

 

 

চলতি সপ্তাহের শুরুতে সিএনএনের রিপোর্টার ডন লেমন ইন্টারভিউ নেন লেব্রন জেমসের। সাক্ষাৎকারে জেমস বলেন, খেলার কারণেই তিনি বিভিন্ন শ্রেণি ও বর্ণের মানুষের কাছাকাছি আসতে পেরেছেন।

 

তিনি বলেন, ‘খেলা কখনও মানুষকে বিভক্ত করে না, বরং সব সময় মানুষকে একত্র করে।’

 

 

জেমস বলেন, ‘তিনি (ট্রাম্প) আমাদের বিভক্ত করছেন। বিগত কয়েক মাস ধরে আমি লক্ষ্য করছি, আমাদের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টির জন্য তিনি স্পোর্টসকে ব্যবহার করছেন। আমি কখনও শুনিনি খেলায় সাদা-কালো আছে, যা প্রথম শুনছি।’

 

তিনি আরো বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পদক্ষেপ বর্ণবাদকে উৎসাহিত করবে।

 

এর জবাবে শুক্রবার রাতে ট্রাম্প টুইটারে বলেন, ‘একজন বোকা লোক (ডন লেমন) লেব্রন জেমসের ইন্টারভিউ নিয়েছেন।’

 

ট্রাম্প বলেন, ‘তিনি (লেমন) লেব্রনকে স্মার্ট বানানোর চেষ্টা করেছেন, কিন্তু সেটা সহজ কাজ নয়।’ তিনি বরং এনবিএ (ন্যাশনাল বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশন) লিজেন্ড মাইকেল জর্ডানকে পছন্দ করেন বলেও উল্লেখ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

 

ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওই টুইটার বার্তার পর ব্যাপক সমালোচনা হয়। এমনকি তার বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ আনেন দেশটির পেশাদার অ্যাথলেট ও ওহিয়ো অঙ্গরাজ্যের গভর্নর। কারণ লেব্রন জেমস ও ডন লেমন দুইজনই কৃষ্ণাঙ্গ।

 

 

অন্যদিকে, শনিবার ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া তার মুখপাত্রের মাধ্যমে লেব্রন জেমসের প্রশংসা করেছেন। এক বিবৃতিতে মার্কিন ফার্স্ট লেডি বলেছেন, জেমস আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য ভালো কিছু করছেন। এমনকি, ওহিয়ো রাজ্যের নিজ শহর অ্যাক্রনে জেমস যে স্কুল (আই প্রমিজ স্কুল) প্রতিষ্ঠা করেছেন তাও পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন মেলানিয়া।

 

অন্যদিকে, ট্রাম্প যে মাইকেলকে পছন্দ করার কথা বললেন সেই জর্ডানই পরে টুইটারে বলেছেন, ‘আমি লেব্রন জেমসকে সাপোর্ট করি। তিনি তার সম্প্রদায়ের জন্য অসাধারণ কাজ করছেন।’

 

 

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাথলেটদের মধ্যে যারা ট্রাম্পের সমালোচক তার মধ্যে অন্যতম এই আফ্রিকান-আমেরিকান লেব্রন জেমস। এর আগে ২০১৭ সালে একটি বাস্কেটবল চ্যাম্পিয়নশিপের অনুষ্ঠানে না যাওয়ায় ট্রাম্পের সমালোচনা করেন লেব্রন।

 

 

তাছাড়া সিএনএনের ওই সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি মেক্সিকো সীমান্তে অভিবাসী শিশুদের তাদের বাবা-মা থেকে আলাদা করা সংক্রান্ত ট্রাম্পের সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করা হয়।

 

 

ক্ষমতায় আসার পর ভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের খেলোয়াড়দের নিয়েও নানা সমালোচনামূলক কথা বলেছেন ট্রাম্প। এর আগে ন্যাশনাল ফুটবল লিগ নিয়েও মন্তব্য করেন তিনি।

 

এদিকে, লেব্রনের ইন্টারভিউ নেওয়া সাংবাদিক ডন লেমন ট্রাম্পের টুইট পোস্টের সমালোচনা করেছেন। মেক্সিকো সীমান্তে মা-বাবা থেকে শিশুদের আলাদা করার প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, ‘কে প্রকৃত নির্বোধ যিনি শিশুদের শ্রেণিকক্ষে রাখেন না যিনি শিশুদের খাঁচায় (কারাগার) রাখেন?’