এসির বিদ্যুৎ বিল কমাতে কিছু টিপস

ফুলকি ডেস্ক : দিনভর বৃষ্টির পরও বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতা। ফলে গরম কমছে না। আবহাওয়ার এই খামখেয়ালিপনার জন্য বাড়ে এসির বিক্রি। বর্ষাকালের ভ্যাপসা গরম থেকে বাঁচতে এসির দ্বারস্থ হতে হচ্ছে। সারা দিন এসি চালিয়ে রাখায় চাপ পড়ছে পকেটে। সঙ্গে ঠা-া লেগে বাড়ছে সর্দি-কাশি। তা হলে উপায়? এমন কিছু ঘরোয়া উপায় আছে, যা মানলে এসি ছাড়াই আপনার ঘর থাকবে ঠা-া। সে সব সহজ উপায় দেখে নিন ঝলকেÍ

 

 

পুরনো আমলের মানুষরা খসের পর্দা ব্যবহার করতেন। ঘর-বাড়ি ঠা-া রাখতে, রোদের তাপ থেকে ঘরের ভেতরকে বাঁচাতে আজও কিন্তু এর কোনো বিকল্প নেই। বাজার থেকে কিনে আনুন খসের পরদা। জানালায় টাঙিয়ে রাখুন। মাঝেমধ্যেই তাতে পানি ছিটিয়ে ভিজিয়ে নিন। ঘর থাকবে অনেক ঠা-া ও আরামদায়ক।

 

ঘরের মধ্যে রাখতে পারেন ছোট টবে রাখা সবুজ বাহারি গাছ। এতে ঘরের সৌন্দর্যও বাড়বে, সঙ্গে গাছের উপস্থিতিতে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

 

দরকার না থাকলে বেশি ক্ষমতাযুক্ত আলো জ্বালাবেন না ঘরে। বরং, কম ক্ষমতাসম্পন্ন বাল্ব জ্বালিয়ে রাখতে পারেন। টিউব বা বাল্বের গা থেকে তাপ বিকিরণের ফলেও ঘর কিছুটা গরম হয়।

 

ঘরে ব্যবহার করুন হালকা রঙের পর্দা। হালকা রঙের তাপ শোষণ ক্ষমতা কম। তাই হালকা রঙের পর্দায় বাইরের তাপ কম শোষিত হয়। ঘরের তাপমাত্রা কম রাখতে সাহায্য করে।

 

ঘর মোছেন যখন, তখন ঘর মোছার জীবাণুনাশক তরলের সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে নিন। লবন-পানি তাপের ভারসাম্য বজায় রাখে। এতে মেঝে থেকে উঠে আসা গরমের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া সহজ হয়।