সিলেটে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই, রাজশাহী ও বরিশালে এগিয়ে আ. লীগ

ফুলকি ডেস্ক : রাজশাহী ও বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আংশিক ফলাফলে এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী। তবে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। এ নির্বাচনে ৭৩টি কেন্দ্রে ঘোষিত ফলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীর ভোটের ব্যবধান খুবই সামান্য। বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪৮ হাজার ২৭০টি ভোট। অপরদিকে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছেন ৪৬ হাজার ২৬১ ভোট। শুরুর দিকে পাওয়া ফলাফলে আরিফুল হক চৌধুরী কিছুটা এগিয়ে ছিলেন। পরবর্তীতে অন্যান্য কেন্দ্র থেকে পাওয়া ফলাফলে এখন সামান্য ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। সোমবার রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি করপোরেশনে ভোট শেষে রিটার্নিং অফিস ঘোষিত ফল অনুসারে প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:
বরিশাল সিটি নির্বাচনে ৯৩টি ভোটকেন্দ্রের প্রাপ্ত ভোটে এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। তিনি পেয়েছেন ৯৩ হাজার ৭০৭ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরওয়ার ভোট পেয়েছেন ১১ হাজার ৭৫ ভোট। এ সিটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৪২ হাজার ১৬৬ জন। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১২৩টি।
রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৯৫টি কেন্দ্রের ফলাফলে আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন পেয়েছেন ১ লাখ ৬ হাজার ৬০০ ভোট। বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪৮ হাজার ৪২ ভোট।
এদিকে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে ৭৩টি কেন্দ্রে ঘোষিত ফলে এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। তিনি পেয়েছেন ৪৬ হাজার ২৬১ ভোট। অপরদিকে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪৮ হাজার ২৭০টি ভোট।