সিলেটে রাতে ১০/১২টি কেন্দ্রে সিল মেরে রাখার অভিযোগ আরিফের

সিলেট সংবাদদাতা : রাতে ১০/১২টি কেন্দ্রে সিল মেরে রাখার অভিযোগ করেছেন। সিলেট সিটিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, প্রয়োজনে মৃত্যুকে বরণ করে নেবেন তবু নির্বাচনের মাঠ থেকে সরে কাউকে জায়গা করে দেবেন না।

সোমবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিয়ে তিনি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় এই অভিযোগ করেন।সিলেট সিটিতে মোট ভোটার তিন লাখ ২১ হাজার ৭৩২ জন, ভোটকেন্দ্র ১৩৪টি এর মধ্যে দুটি করে কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট গ্রহণ চলছে।

সপরিবারে গিয়ে ভোট দেন তিনি। ভোট দিয়ে বেরিয়ে এসে আরিফুল হক সাংবাদিকদের কাছে বলেন, ‘এজেন্ট, কর্মীদের হয়রানি করে গণজোয়ার থামানো যাবে না। ভোটাররা উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিতে কেন্দ্রে জড়ো হয়েছেন। কোনো ধরনের প্রহসনের চেষ্টা হলে তা প্রতিহত করা হবে।’

এসময় বিএনপির এই মেয়র প্রার্থী অভিযোগ করেন যে, নগরীর ২০ নম্বর ওয়ার্ডের এমসি কলেজ কেন্দ্রসহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে রোববার (২৯ জুলাই) রাতেই নৌকার প্রার্থীর পক্ষে সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভরে রাখা হয়েছে।

শত প্রতিকূলতার মধ্যে যদি জনগণ ভোট দিতে পারে তাহলে তিনি বিপুল ভোটে মেয়র নির্বাচিত হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘কোনো অবস্থাতেই সিলেটের ভোটের মাঠ অস্থিতিশীল হতে দেবো না।’

সিলেটের মানুষ ভোটকেন্দ্রে আসছেন উল্লেখ করে এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘তারা যেন নিজের ভোট নিজে দিতে পারে সেটি প্রশাসনকে নিশ্চিত করতে হবে।’

রাজশাহী ও বরিশালের সঙ্গে সোমবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ।