জেনে নিন, মানুষ কেন হঠাৎ জ্ঞান হারায়?

ফুলকি ডেস্ক: অনেক সময় এমন হয়, যেন চোখের দৃষ্টি কমে যাচ্ছে বলে মনে হয়, ভীষণ দুর্বল লাগে, এতই দুর্বল যে সামনে আর পা বাড়ানো যাচ্ছে না, চারপাশ ঘুরছে৷ এ অবস্থায় আপনি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যেতে পারেন৷ এ অবস্থাকে মূর্ছা যাওয়া বলে৷ ডাক্তারি ভাষায় একে সিনকোপ (syncope) বলা হয়।

অজ্ঞান হওয়ার কারণ

হৃদ্‌পিণ্ড দ্বারা সঞ্চালনের ফলে ধমনির মাধ্যমে মস্তিষ্কে রক্ত প্রবাহিত হয়৷ রক্ত থেকে অক্সিজেন ওপুষ্টি গ্রহণ করে মস্তিষ্কের কোষগুলো কাজ করে থাকে৷ সাময়িক রক্তপ্রবাহ কমে গেলে মস্তিষ্কেরস্বাভাবিক কাজ অনেকাংশেই বন্ধ হয়ে যায়৷ ফলে রোগী অজ্ঞান হয়ে পড়ে৷ যেসকল কারণে সাময়িক রক্তপ্রবাহকমে যেতে পারে তা হল-

  • হঠাৎ শোয়া বা বসা থেকে উঠে দাঁড়ানো;
  • অতিরিক্ত উত্তেজনা;
  • ভয়ভীতি;
  • আতঙ্ক;
  • দুঃসংবাদ;
  • অত্যাধিক গরম আবহাওয়া;
  • আঁটসাঁট জামা-কাপড় পরা;
  • অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকলে;
  • রক্তশূন্যতা;
  • রক্তক্ষরণ;
  • তীব্র ব্যথা;
  • উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ সেবন;
  • হার্টের ভাল্বের সমস্যা;
  • অনিয়ন্ত্রিক হৃদস্পন্দন বা হার্ট ব্লক;
  • জণ্মগত হার্টের ত্রুটি ইত্যাদি কারণে হঠাৎ অজ্ঞান হতে পারে৷

অজ্ঞান রোগীর অন্যান্য লক্ষণ:

জ্ঞান হারানো ছাড়াও রোগীর আর যে সব লক্ষণ থাকে তা হলো-

  • এ অবস্থায় নাড়ির গতি দুর্বল ও ক্ষীণ হয়;
  • রক্তচাপ কমে যায়;
  • শ্বাস-প্রশ্বাস দ্রুত হয়;
  • ত্বক শীতল ও ফ্যাকাসে হয়ে পড়ে;
  • চোখের মণি বড় হয়ে যায়;
  • ঠোঁট ফ্যাকাসে বা নীল হতে পারে;
  • ঘুম ঘুম ভাব হয়;
  • রোগীকে অনেক সময় ডাকলে সাড়া দেয় কিন্তু পরক্ষণেই আবার পূর্বের অবস্থায় চলে যায়;
  • কখনো রোগী বেসামাল থাকতে পারে৷ প্রশ্ন করলেও সঠিক উত্তর দিতে পারে না;
  • মাঝে মাঝে মস্তিষ্কের অক্সিজেন সরবরাহ কমে যাওয়ার কারণে খিঁচুনিও হতে পারে;
  • গরম আবহাওয়ায় শরীর থেকে প্রচুর পানি বের হয়ে যায় ফলে মাথাব্যথা হতে পারে।