রেফারির হলুদ কার্ডে অটোগ্রাফ দিলেন ওজিল

ফুলকি ডেস্ক: অনেকটা অভিমান নিয়েই ছেড়েছেন জার্মান জাতীয় দল। নিজের বাবার জন্মস্থান তুরস্কের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশের জন্য কম কথা শুনতে হয়নি জার্মান ফুটবল তারকা মেসুত ওজিলকে। এত কিছুর পরও তার জনপ্রিয়তা যে একটুও কমেনি তা প্রমান হলো শনিবার রাতে ইংলিশ ক্লাব আর্সেনাল ও ফ্রেঞ্চ জায়ান্ট প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের মধ্যকার ম্যাচে।

সিঙ্গাপুর জাতীয় স্টেডিয়ামের এই ম্যাচে ৫-১ গোলে পিএসজিকে উড়িয়ে দিয়েছে গানাররা। ম্যাচ শুরুর আগে মাঠে নামার জন্য টানেলে অপেক্ষা করছিলেন আর্সেনালের খেলোয়াড়রা। এসময় ম্যাচ রেফারি তার কাছে থাকা হলুদ কার্ডটি অটোগ্রাফের জন্য এগিয়ে দেন ওজিলের দিকে।

বেশ অবাক হলেও রেফারিকে ফেরাননি ওজিল। হাসি মুখেই অটোগ্রাফ দিয়েছেন রেফারির বাড়িয়ে দেওয়া হলুদ কার্ডে। অটোগ্রাফ দেওয়ার এই দৃশ্য মুহূর্তেই ভেসে ওঠে টেলিভিশনে। এরপরই তা ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে।

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর থেকেই সমালোচনায় বিদ্ধ হন ওজিল। তার দল জার্মানির গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ের মূল কারণ হিসেবে এই মিডফিল্ডারকেই দোষারোপ করা হয়। পরে রাগে, দুঃখে, ক্ষোভে জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়ে ফেলেন এই তারকা। তবে ক্লাব ফুটবলে ফিরেই গোল করে সমালোচকদের জবাবটা ভালোভাবেই দেন তিনি।

ম্যাচের ১২ মিনিটে দুর্দান্ত এক গোল করে আর্সেনালকে ওজিলই এগিয়ে দেন। পরে ৬৭ ও ৭১ মিনিটে জোড়া গোল পূর্ণ করেন স্ট্রাইকার আলেকজান্দ্রে লাকাজাত্তে। ৮৭ মিনিটে রব হোল্ডিং চতুর্থ গোলটি করেন। আর যোগ করা সময়ে এডি এনকেতিয়াহ পিএসজির কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন। মাঝে ৬০ মিনিটে অবশ্য পিএসজির ক্রিস্টোফার এনকুনকু পেনাল্টি থেকে একটি গোল করে শুধুমাত্র ব্যবধান কমান।

বিশ্বকাপের পর এখনও দলের সঙ্গে যোগ না দেয়ায় এ ম্যাচে অবশ্য ছিলেন না পিএসজির সেরা তিন তারকা নেইমার, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও এডিনসন কাভানি।