কেন গায়েব হয়েছিল এক টাকার সোনালী কয়েন? জানুন আসল রহস্য

ফুলকি ডেস্ক: দেশে ২০১০ সালে হঠাৎ করেই বেড়ে যায় ১ টাকা মানের সোনালী কয়েনের দাম। জানা গেছে, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ৫০-১০০ টাকায় কিনে নিচ্ছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। কিন্তু কি করা হয়েছে সেই সোনালী কয়েন দিয়ে? এর রহস্য আজও  উন্মোচিত হয়নি। এ নিয়ে রয়েছে নানান মুখরোচক কথা।

মূল ঘটনা হলো ডেনমার্কএ একটা স্বর্ণ খনি পাওয়া গেছে.এখন ওই খনিতে একটা মেশিন চালাতে যে পদার্থের প্রয়োজন সেটা আছে কেবল বাংলাদেশের এক টাকার সোনালী কয়েনে যা আর বিশ্বের কোথাও পাওয়া যায়নি।

কিন্ত এই এক টাকার মালিকান বাংলাদেশ সরকারের। তাই তারা সরাসরি কিছু বলতে পারতেছিলোনা। এজন্য তারা খবরটা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দিছে যে, তারা প্রতিটা কয়েন ১০০০ টাকায় কিনবে। এসংশ্লিষ্ট একটি চক্র দেশের সব কয়েন কিনে তা ডেনমার্কে পাচার করে দেয়। উদ্দেশ্য সব কয়েন গলিয়ে সেই মেশিন চালানো।

একারণে তারা ,তাই যে যেভাবে পারছে কয়েন ৫০, ১০০, ৫০০ টাকায় কিনে সেই চক্রের কাছে বিক্রি করে দিয়েছে।