এক মাস আলাদাই থাকতে হবে বিরাট-আনুশকাকে

না, ঘর ভাঙার খবর নয়। বিরাট কোহলি আর আনুশকা শর্মার সম্পর্কটা পোক্তই আছে। তবে এক মাস তাদের থাকতে হবে আলাদা আলাদা। স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে থাকতে পারবেন না, এ কেমন কথা? কেন এমন শাস্তি!

সবকিছুই আসলে খেলার জন্য। ইংল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি ও একদিনের সিরিজ শেষ। টিম ইন্ডিয়ার সামনে এবার টেস্ট সিরিজের অগ্নিপরীক্ষা। পাঁচ টেস্টের সিরিজ শুরু হওয়ার আগে কয়েকদিনের ছুটিতে স্ত্রী আনুশকার সঙ্গে বেশ আনন্দেই সময় কাটিয়েছেন কোহলি। এবার সেই আনন্দে বাধ সেঁধেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। বোর্ডের পক্ষ থেকে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়েছে, সিরিজের তৃতীয় টেস্ট পর্যন্ত স্ত্রীদের সঙ্গে আর থাকতে পারবেন না কোহলিরা।

এর আগে অনেকবারই ক্রিকেটারদের খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য স্ত্রী-বান্ধবীদের দায়ী করেছেন ভক্ত-সমর্থকরা। এবার আর যাতে তেমন কিছু না হয়, সেজন্যই বোধ হয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের!