আ.লীগের নেতাকর্মীদের নির্যাতন করেই সরকার চালাতো বিএনপি : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্যাতন করেই দল ও সরকার চালাতো বিএনপি। বিএনপি, জামাত ও জামাত ইলামী তারা ধর্মের নামে রাজনীতি করে। ধর্মের নামে রাজনীতি করেও তারা পবিত্র কোরআন শরীফ পুড়িয়েছিলো।

আজ শুক্রবার গণভবনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে গণভবনে তিনি এসব কথা বলেন

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা বিএনপির ষড়যন্ত্র দেখেছি, ২০১৩ সালের ষড়যন্ত্র। তাদের ষড়যন্ত্রে বায়তুল মোকাররমও রেহায় পায়নি। মসজিদের ভেতরে কোরআন শরীফ পড়া অবস্থায় মানুষ হত্যা করছে তারা। শত শত কোরআন শরীফ পুড়িয়েছে। তিনি বলেন,বিএনপির মাহমুদর রহমানের মতো উপদেষ্টার জন্য দুর্নীতি হয়েছে, তাদের দুর্নীতির কারণে তখন দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন কমে গিয়েছিলো।

তিনি আরো বলেন, তাদেরই ক্যাডাররা যে বায়তুল মোকাররমের বাইরে বসে যে কোরআন শরীফ বিক্রি করে তারা জীবিকা অর্জন করে। তাদের শত শত কোরআন শরীফ পড়িয়ে দিয়েছিলো। তারা পাড়ে না এমন কোনো কাজ নেই। তিনি বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচন ঠেকানোর নামে তারা (বিএনপি) প্রিজাইডিং অফিসার ও সহপ্রিজাইডিং অফিসারকে হত্যা করেছে। পাওয়ার প্লান্টে আগুন দিয়ে ইঞ্জিনিয়ারকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। সে সময় ২৭ জন পুলিশ বাহিনীর লোকজনকে হত্যা করেছিলো। তাদের হাতে শুধু রাজনৈতিক নেতা না শুধু কেউ রেহাই পায়নি।