শিক্ষিকাকে দায়ী করে চিরকুট লিখে ছাত্রীর আত্মহত্যা

রাজধানীর শাহজাহানপুরের গুলবাগের বাসা থেকে শহীদ ফারুক ইকবাল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আত্মহত্যার কারণ হিসেবে সে তার একজন শিক্ষিকাকে দয়ী করে গেছে। এরপর পুলিশ আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে ওই শিক্ষিকাকে গ্রেফতার করেছে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম সুরাইয়া আকতার মালিহা (১৪)।

বুধবার (২৫ জুলাই) নিহত মালিহার লাশের ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মালিহার বাবা মো. আলী ভূঁইয়া এই ঘটনায় শাহজাহানপুর থানায় একটি আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা দায়ের করেছেন। এরপর শিক্ষিকা আমেনা পারভিন রিমিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

শাহজাহানপুর থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শামীম কে বলেন, ‘চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে, সেখানে ওই টিচারের নাম উল্লেখ রয়েছে। এরপর শিক্ষার্থীর বাবা মামলা করার পর ওই শিক্ষিকাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

মালিহা চিরকুটে লিখেছে, ‘আমার সু্ইসাইড করার কারণ একমাত্র রিমি মেডাম (ম্যাডাম)। সে অযথা পরীক্ষায় আমার খাতা নিসে (নিয়েছে)। আর পরীক্ষায় কম নম্বার দিসে (দিয়েছে)। তোমরা যদি পার (পারো) তাহলে সে মেডামের (ম্যাডাম) মানসিক চিকিৎসা দাও। মেন্টাল হসপিটালে পাঠাও। মেডাম (ম্যাডাম) আমারে অভিশাপ দিসে (দিয়েছে), তাই আমার রেজাল্ট খারাপ হইসে (হয়েসে)।