শিক্ষার্থীদের হাতে স্মার্টফোন থাকায় তারা পরিবার থেকে দূরে চলে যাচ্ছে : সাভারে নাসিম আনোয়ার

স্টাফ রিপোর্টার: সাভারে দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ ২০১৮ উদযাপন উপলক্ষে দুর্নীতি বিরোধী চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ ও সুধীজনের সাথে শিক্ষা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ রবিবার (২২-০৭-২০১৮) দুপুরে সাভার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠিানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ার।


উপজেলা প্রশাসন ও সাভার উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি (দুপ্রক) কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ রাসেল হাসানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এর উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্নীতি দমন কমিশনের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ার বলেন, শিক্ষার্থীদের হাতে স্মার্টফোন থাকায় তারা পরিবার থেকে দূরে চলে যাচ্ছে এবং পিতা-মাতার সাথে সন্তানের দূরত্ব সৃষ্টি হচ্ছে।

মা-বাবার প্রতি সন্তানের দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনের বিষয়ে সকলকে অনুরোধ জানিয়ে শিক্ষার্থীদের জ্ঞানবৃদ্ধির জন্য কুইজ প্রতিযোগিতা এবং বছরে একবার হলেও বাবা-মায়ের পা ধোয়ানোর ব্যবস্থা করার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের আহ্বান জানান।


ঘুষ, দুর্নীতিসহ যে কোন ফৌজদারী অপরাথের তথ্য জানাতে সকলকে হটলাইন ১০৬ ব্যবহার এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেয়ার কথা জানান এই কর্মকর্তা। তিনি বলেন, মাদক একটি পরিবার, সমাজ তথা গোটা দেশকে ধ্বংশ করে দিতে পারে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সততা স্টোর চালু করে শিক্ষার্থীদের বিবেককে জাগ্রত করার পাশাপাশি নৈতিকতা শিক্ষা দিতে হবে। ফরে শিক্ষার্থীরা নির্লোভ এবং সত্যবাদি হিসেবে বড় হয়ে দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত হয়ে সুষ্ঠুভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারবে। তাহলেই দেশ এগিয়ে যাবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এর উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিম শিক্ষার্থীদের মেধা বৃদ্ধির জন্য ভর্তি এবং কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই পাঠদানের উপর গুরুত্বারোপ করেন। অন্যথায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

সভপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ রাসেল হাসান একটি গল্পের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদেরকে সততার সাথে চলার পরামর্শ দেন। এর আগে তিনি প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত ও শপথ পাঠ করানোসহ শিক্ষার্থীদেরকে নৈতিক শিক্ষা প্রদানের নির্দেশ দেন।

শিক্ষা বিষয়ে উন্মুক্ত মতবিনিময় সভা শেষে প্রতিযোগী অংশগ্রহণকারী প্রত্যেককে একটি করে স্কুল ব্যাগ, একটি স্কেল, একটি খাতা, নীতিবাক্য সম্বলিত একটি হাতপাখা প্রদান করা হয়। এছাড়া বিজয়ীদের হাতে একটি করে ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

এবার দুর্নীতি বিরোধী চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতায় ‘ক’ বিভাগে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে প্রথম স্থান লাভ করেছে জিরাবো ক্যান্ট:পাবলিক স্কুল ও কলেজের ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী শিরিন সুলতানা স্মৃতি, দ্বিতীয় স্থান লাভ করেছে একই প্রতিষ্ঠানের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থী নুসরাত ইসলাম এবং তৃতিয় স্থান লাভ করেছে বিপিএটিসি স্কুল এন্ড কলেজের ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফিফা মাসুমা।

এছাড়া ‘খ’ বিভাগে আবহমান বাংলা বিষয়ে প্রথম স্থান লাভ করেছে বেপজা পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফারিহা ইসলাম, দ্বিতীয় স্থান লাভ করেছে একই প্রতিষ্ঠানের ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সানজিদা আক্তার কণিকা এবং তৃতিয় স্থান লাভ করেছে জিরাবো ক্যান্ট:পাবলিক স্কুল ও কলেজের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী শেখ মোঃ মাহাথীর।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোছাঃ কামরুন নাহার, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তাবশিরা ইসলাম লিজা, সাভার প্রেস ক্লাবের সভাপতি নাজমুস সাকিব, সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ আচার্য্য, সচেতন নাগরিক কমিটির (সাভার) সভাপতি অধ্যাপক দীপক কুমার রায়, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির (দুপ্রক) সভাপতি শওকত মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন খান নঈম, বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও সুধিজনেরা উপস্থিত ছিলেন।