রেকর্ড গড়া দামে লিভারপুলে ব্রাজিলের গোলরক্ষক অ্যালিসন

ফুলকি ডেস্ক: বিশ্বকাপের পর থেকেই গুঞ্জন ছিল। অবশেষে গুঞ্জনটা বাস্তবে রূপ নিল। গোলরক্ষকের দলবদলের রেকর্ড গড়ে রোমা থেকে লিভারপুলে যোগ দিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান অ্যালিসন। এই ব্রাজিলিয়ানই এখন বিশ্বের সবচেয়ে দামি গোলরক্ষক।

৭২.৫ মিলিয়ন ইউরোতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব লিভারপুলে নাম লিখিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার দুই পক্ষের মধ্যে চুক্তি পাকাপাকি হয়।

তবে আপাতত ৬২.৫ মিলিয়ন ইউরো পাবেন রোমা। পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী একবছরে মিলবে বাকি ১০ মিলিয়ন ইউরো।

দুই বছর ইতালিয়ান ক্লাবটিতে ছিলেন ২৫ বছর বয়সী অ্যালিসন। গত মৌসুমে সিরিআতে ৩৭টি ম্যাচ খেলেন তিনি।

২০০১ সালে পারমা থেকে জিয়ানলুইজি বুফনকে কিনতে জুভেন্টাস খরচ করেছিল ৫৩ মিলিয়ন ইউরো। সেটিই ছিল এতদিন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি দামে কোনো গোলরক্ষককে কেনার রেকর্ড। অ্যালিসন ভাঙলেন বুফনের রেকর্ড। গোলরক্ষকের জন্য প্রিমিয়ার লিগের রেকর্ড ৪০ মিলিয়ন ইউরো। ২০১৭ সালের জুনে বেনফিকা থেকে এডারসনকে দলে টানতে এই অর্থ খরচ করেছিল গত মৌসুমের প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি।

২০১৩ সালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব ইন্টারন্যাসিওনালের হয়ে অ্যালিসনের ক্যারিয়ার শুরু। গত দুই বছর ধরে রোমায় খেলছেন। ২৫ বছর বয়সি এই গোলরক্ষক গত মৌসুমে সিরিআতে ৩৭ ম্যাচ খেলেছেন।

এদিকে দলবদলে রেকর্ড গড়ায় বেশ খুশি ২৫ বছর বয়সী অ্যালিসন। ক্লাবের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন,  আমি খুবই খুশি। স্বপ্ন সত্যি হলো। এতো বড় মর্যাদাপূর্ণ ক্লাবের শার্ট পরতে পেরে সত্যিই অভিভূত। আমার জীবন এবং ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করলে লিভারপুলে যোগ দেয়া আমার এবং আমার পরিবারের জন্য বড় পদক্ষেপ। আপনারা একটা বিষয়ে নিশ্চিত থাকতে পারেন আমি আমার সর্বোচ্চটুকু উজাড় করে দেব।

লিভারপুরের ম্যানেজার ইয়ুর্গেন ক্লপ অ্যালিসনকে পেয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেছেন, এই মুহূর্তে আমরা বিশ্বের সেরা গোলরক্ষককে দলে ভিড়িয়েছি। এটা নিয়ে গভীরভাবে চিন্তা করার কিছু নেই। মালিকপক্ষও বেশ উচ্ছ্বসিত, আমিও উচ্ছ্বসিত। দলবদলের বাজার নিয়েও উদ্বিগ্ন নেই। তার এখানে কিছু করার নেই। আমাদেরও করার নেই। এটা বাজার নির্ধারণ করে।

লিভারপুল কিছুদিন পর ফ্রান্সে শর্ট ট্রেনিং ক্যাম্প শুরু করবে। এর আগে আমেরিকাতে নাপোলি এবং টরিনোর বিপক্ষে দুটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলবে তারা। প্রিমিয়ার লিগে তাদের প্রথম ম্যাচ ২১ আগস্ট ওয়েস্ট হ্যামের বিপক্ষে।

রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিলের হয়ে পাঁচ ম্যাচ খেলে তিনটিতে কোনো গোল হজম করেননি আলিসন। কোয়ার্টার-ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে ২-১ গোলের হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যায় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।