মাদক ও জঙ্গীবাদ রুখে দেয়ার মূল হাতিয়ার হোক সাংস্কৃতিক উৎসব : সাভারে আসাদুজ্জামান নূর

স্টাফ রিপোর্টার: ‘মাদক ও জঙ্গীবাদ রুখে দেয়ার মূল হাতিয়ার হোক সাংস্কৃতিক উৎসব’ এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি। গতকাল শুক্রবার ঢাকা জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত দু’দিনব্যাপি ‘সাংস্কৃতিক উৎসব-২০১৮’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে বিকালে সাভার সরকারী বিশ^বিদ্যালয় কলেজ মাঠে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এ উৎসবের শুভ উদ্বোধন করেন আসাদুজ্জামান নূর এমপি।

এসময় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এক সময় মানুষ দেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছিলেন, তরুণ সমাজের মাধ্যমে দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক স্বপ্ন দেখাচ্ছেন। মানুষ ঘুমিয়ে যে স্বপ্ন দেখে সেটি স্বপ্ন না, যে স্বপ্ন ঘুমাতে দেয়না সেটিই বাস্তব স্বপ্ন। আমরা বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদের দেশ হতে দিতে চাই না। এ সমাজ হবে উন্নয়নের সমাজ। এসময় তিনি বিএনপি জামায়াতের যেকোন আন্দোলন রুখে দেওয়ার জন্য দেশের সংস্কৃতি কর্মীদের আহবান জানান। বর্তমান সরকারের সময় দেশের সকল মানুষ নিরাপদে ও শান্তিপূর্নভাবে সাংস্কৃতিক সকল কর্মকান্ড পালন করছে।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান সর্বপোরি ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সকল আন্দোলনেই দেশের সংস্কৃতি কর্মীদের ভূমিকা প্রশংসনীয়। বিশেষ করে মহান মুক্তিযুদ্ধে সংস্কৃতি কর্মীদের গান ও কবিতা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরনা যোগায়। বর্তমানে বিদেশী সংস্কৃতি আমাদের দেশকে আকড়ে ধরছে। এর হাত থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে তরুণ প্রজন্মকে দেশীয় সংস্কৃতিতে মনোনিবেশ করাতে হবে। এজন্য দরকার দেশের প্রতিটি উপজেলায় শিল্পকলা একাডেমি গড়ে তুলাসহ শিল্প সাংস্কৃতিক সংগঠন গড়ে তুলা। বেশী বেশী সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত করা। দেশের তৃণমূল পর্যায়ে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষেই সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৮ শুরু করেছে।

তিনি আরও বলেন, রাজধানীর অতি কাছের এই উপজেলাটিতে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড আরও বেগবান হবে। মাদক, জঙ্গিবাদ নির্মূল করতে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড সমাজের সকল স্তুরে ছড়িয়ে দিতে হবে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমান বলেন, সাভারে এই প্রথমবারের এতো বড় সাংস্কৃতিক উৎসব পালিত হচ্ছে। এর আগে কখনও এমন আয়োজন হয়নি। এই উৎসবের মাধ্যমে মাদক ও জঙ্গীবাদ নির্মূল হবে। তরুন প্রজন্মকে মাদক ও জঙ্গীবাদ থেকে বিরত রাখার জন্য বেশী করে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। এতে করে তারা সংস্কৃতিমনা হয়ে উঠবে এবং বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড থেকে নিজেদেরকে বিরত রাখবে।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঢাকা জেলা প্রশাসক আবু সালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব  মসিউর রহমান, সাভার কলেজের অধ্যক্ষ ইলিয়াস খান প্রমুখ।

অনুষ্ঠনটি সঞ্চালনা করেন সাভার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রণব কুমার ঘোষ ও নাট্য অভিনেতা স্মরণ সাহা।