সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে বিএনপি

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে পূর্বঘোষিত সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে দলটি। আগামীকাল শুক্রবার (২০ জুলাই ) বেলা ৩টায় রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এই সমাবেশ হবে। সমাবেশে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

বিএনপির উপ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সকাল ১১টার দিকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবুল খায়ের ভুঁইয়ার নেতৃত্বে একটি প্রতিনধি দল মহানগর পুলিশ কমিশনারের কাছে গিয়েছিলেন। তখন সমাবেশের জন্য মৌখিক অনুমতি দিয়েছে।’

গত রবিবার (১৫ জুলাই) এক সংবাদ সম্মেলনে সমাবেশের এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
এর আগের দিন শনিবার (১৪ জুলাই) বিকেল পৌনে ৫টায় নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাঘারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যান পরিবারের পাঁচ সদস্য। কিন্তু সোয়া ৫টা পর্যন্ত কারাগারের ভেতরে অবস্থান করেও দেখা করতে না পেরে ফিরে যান তারা।

ওইদিন কারাগারের ফটকে খালেদা জিয়ার বড় বোন সেলিমা ইসলাম উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, ‘এর আগে ওপরে গিয়ে খালেদা জিয়ার রুমের পাশে করিডোরে দেখা করতাম আমরা। কিন্তু আজ তিনি অসুস্থ জেনে এসেছি। তিনি হাঁটতে পারেন না, তার পায়ে ব্যথা। তিন-চার দিন ধরেই বেশ জ্বর। এখন বুকে ব্যথা। তিনি তো হাঁটতে পারছেন না। নামবেন কী করে? আমরা তার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন।’

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর কারাদণ্ডাদেশ দেন বিচারিক আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই তাকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি এখন সেখানেই আছেন।