মাদ্রাসা বোর্ডের পাসের হার সবচেয়ে বেশি

স্টাফ রিপোর্টার : উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় ১০ বিভাগের মধ্যে এবার মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পাসের হার সবচেয়ে বেশি। ১০ শিক্ষা বোর্ডে পাসের গড় হার ৬৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ হলেও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৭৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষা বোর্ডের প্রধানদের নিয়ে ফলের অনুলিপি হস্তান্তর করেন। এ সময় এ বছর মোট পাস করেছে আট লাখ ৫৮ হাজার ১০১ জন। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৯ হাজার ২৬২ জন বলে জানানো হয়। এ বছর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে মোট ৯৭ হাজার ৭৯৩ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে ৭৬ হাজার ৯৩২ জন পাস করেছে । পাসের হার ৭৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে এক হাজার ২৪৪ জন।

২০১৭ সালের ফলাফল অনুযায়ী মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ৯৬ হাজার ৮০২ জন পরীক্ষা দিয়েছিল। এর মধ্যে পাস করেছিল ৭৪ হাজার ৫৬৪ জন। গতবারের চেয়ে এবার দুই হাজার ৩৭১ জন বেশি পাস করেছে। গত বছর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পাসের হার ছিল ৭৭ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ। আর এবার পাসের হার ৭৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। এ বোর্ডে পাসের হার বেড়েছে এক দশমিক ৬৫ শতাংশ।

তবে গতবার জিপিএ ৫ পেয়েছিল এক হাজার ৮১৫ জন। এবার ৫৭১ জন কম জিপিএ ৫ পেয়েছে। দুপুর ১টায় শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করবেন। তারপরই শিক্ষার্থীরা নিজেদের ফল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা অনলাইনে জানতে পারবে। সারা দেশের দুই হাজার ৫৪১টি কেন্দ্রে এবার এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১২ লাখ ৮৮ হাজার ৭৫৭ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। ছাত্রী ছয় লাখ ৮০ হাজার ৮৮৪ আর ছাত্র ছয় লাখ সাত হাজার ৮৭৩। এর মধ্যে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড আর একটি কারিগরি ও একটি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড।

গত ২ এপ্রিল শুরু হয় এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলে ১৩ মে পর্যন্ত। আর ১৪ থেকে ২৩ মের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় ব্যবহারিক পরীক্ষা। বেশ কয়েক বছর ধরে পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে ফাঁস নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা ছিল তুঙ্গে। কিন্তু এবার প্রশ্ন ফাঁসের কোনো ধরনের অভিযোগ প্রায় ছিল না বলেই চলে।

যেভাবে মোবাইল ফোনে পাওয়া যাবে ফল

আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষার্থীরা মোবাইল ফোনে ফল পেতে ঐঝঈ লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৮ লিখতে হবে। এরপর ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে মিলবে ফল।

মাদ্রাসা বোর্ডের শিক্ষার্থীরা ঐঝঈ লিখে স্পেস দিয়ে গঅউ স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৮ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাবেন। পরের এসএমএসে তাঁরা ফল পেয়ে যাবেন।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ফল জানতে ঐঝঈ লিখে স্পেস দিয়ে ঞঊঈ লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৮ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। পরের এসএমএসে ফল জেনে যাবেন শিক্ষার্থীরা।