আঞ্চলিক অফিসেই মিলবে হারানো জাতীয় পরিচয়পত্র

দেশের ১০টি আঞ্চলিক অফিস থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র মুদ্রণ ও বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ জন্য আঞ্চলিক অফিসগুলোতে সার্ভার স্টেশন স্থাপন করেছে সংস্থাটি। হারিয়ে যাওয়া জাতীয় পরিচয়পত্র এসব আঞ্চলিক অফিস থেকেই তোলা যাবে আগামী ১ আগস্ট থেকে।

জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন (এনআইডি) উইংয়ের মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম মঙ্গলবার এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, আঞ্চলিক অফিসে হারানো আইডি কার্ড মুদ্রণ ও বিতরণের জন্য আমরা সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। আগামী ১ আগস্ট থেকে অানুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম শুরু হবে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা ও ফরিদপুরে ইসির আঞ্চলিক কার্যালয়ে আগস্ট থেকে হারানো পরিচয়পত্র তোলা যাবে। এ জন্য মাঠ পর্যায়ের প্রত্যেকটি অফিসের জন্য এক লাখ ২০ হাজার টাকা বরাদ্দও দিয়েছে কমিশন। আর প্রত্যেকটি অফিসের জন্য কেনা হয়েছে ২টি প্রিন্টার, ২টি লেমিনেটিং মেশিন, ২টি কাটিং মেশিন এবং পাউচ।

সূত্র জনায়, ঢাকায় জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগের ওপর থেকে চাপ কমাতে হারানো জাতীয় পরিচয়পত্র আঞ্চলিক কার্যালয়ে ছাপানো হবে। সেক্ষেত্রে আঞ্চলিক সার্ভার স্টেশনগুলোর সঙ্গে ঢাকার হেড অফিসের মধ্যে সরাসরি সংযোগ স্থাপন করা হবে। বর্তমানে শুধু ঢাকায় হারানো বা নষ্ট হয়ে যাওয়া কার্ড প্রিন্ট দেয়া হয়। ফলে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র উত্তোলন করতে ঢাকায় আসতে হয় সাধারণ নাগরিকদের। নতুন উদ্যোগের ফলে আঞ্চলিক অফিসে এই সেবা পাওয়া যাবে।

কার্ড হারিয়ে গেলে বা নষ্ট হলে থানায় সাধারণ ডায়েরির (জিডি) অনুলিপির সঙ্গে নির্ধারিত ফি জমা দিলেই বর্তমানে কেন্দ্রীয় অফিস থেকে কার্ড ছাপিয়ে দেয়া হয়।

সূত্র জানায়, স্থানীয় পর্যায়ে ইসির সেবা পৌঁছে দিতে দেশের ৩৩ উপজেলা এবং ২টি জেলায় ইসির নতুন নিজস্ব ভবন করার পরিকল্পনা রয়েছে। এই ভবনগুলোতে ইসির কেন্দ্রীয় অফিসের সঙ্গে যুক্ত করা হবে সার্ভার স্টেশন। এরপর এসব ভবন থেকেও জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্ট কার্ড পাওয়া যাবে।