জেনে নিন নায়িকাদের ফিটনেস রহস্য

ফুলকি.কম: বলিউড তারকাদের ফিট থাকার বিয়টি অনেকের কাছেই রহস্যময়। জেনে নেওয়া যাক তাদের সেই রহস্য।

সোনাক্ষী সিনহা: আলোচিত ছবি ‘দাবাং’-এ অভিনয়ের আগে সোনাক্ষী সিনহার ওজন ছিল ৯০ কেজি। কিন্তু তিনি সাঁতার, টেনিস এবং যোগ ব্যায়াম করে তিনি ৩০ কেজি ওজন কমিয়ে ফেলেন।

সোনাক্ষী সিনহা

সোনম কাপুর: অভিনয়ের শুরুতে তার ওজন ছিলো ৮৬ কেজি।  কিন্তু প্রথম ছবি ‘সাওয়ারিয়া’র জন্য তাকে ৩৫ কেজি ওজন কমাতে হয়েছিলো। এজন্য তিনি নিয়মিত যোগব্যায়াম, সঠিকভাবে ডায়েট করেছেন।

সোনম কাপুর

আরো পড়ুন: উসাইন বোল্ট কেন সফল অ্যাথলেট?

করিনা কাপুর : তিনি জিরো ফিগার নিয়ে বলিউডে অভিনয় শুরু করেছিলেন। এখনও তেমনটাই রয়েছেন। এ জন্য তিনি স্যুপ ও বিভিন্ন্ সবজির সালাত খেয়ে থাকেন।

করিনা কাপুর

পরিণীতি চোপড়া : শরীরের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য পিরিণীতি তার প্রিয় খাবার পিৎজা ও বার্গার খাওয়া চিরতরে বাদ দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি ডাক্তারের পরামর্শে খাবার খাচ্ছেন।

পরিণীতি চোপড়া

ঐশ্বর্য রায় : তার প্রথম সন্তান আরাধ্যার জন্মের পর একটু বেমানান হয়ে গিয়েছিলেন। এর পর তিনি নিয়মিত প্রচুর পরিমাণে ফল, সবজি এবং ফ্যাট ছাড়া খাবার খেয়ে আগের মত স্লিম রয়েছেন।

ঐশ্বর্য রায়

এষা দেওল : তিনি সকাল বিকাল নিয়মিত ব্যায়াম করেন। এর পাশাপাশি ইদানীং তিনি বক্সিংও প্রাকটিস করছেন।

এষা দেওল

আরো পড়ুন: মোজার দুর্গন্ধ দূর করুন খুব সহজেই

প্রিয়াংকা চোপড়া: ফিটনেসের ব্যাপারে নিয়মমাফিক চলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন প্রিয়াংকা। তারই ধারাবাহিকাতায় সপ্তাহে ৫ দিন ব্যায়াম করে থাকেন তিনি। ওই সময় একজন দক্ষ প্রশিক্ষকের কাছে কার্ডিও ব্যায়াম এবং যোগ ব্যায়াম করেন। এছাড়া প্রিয়াংকা নৃত্য ও খেলাধুলা করতেও বেশ পছন্দ করেন।

প্রিয়াংকা চোপড়া

দীপিকা পাড়ুকোন: ‘ফিগার’ এবং ‘ফিটনেস’ নিয়ে দারুণ সচেতন বলিউড ডিভা দীপিকা পাড়ুকোন। তার মতে, ‘শুধু জিমে গিয়ে শারীরিক কসরত করলেই হবে না। সুস্থ এবং ফিট থাকতে হলে আধ্যাত্মিক দিক থেকেও শরীরকে সুস্থ রাখতে হবে।’

দীপিকা পাড়ুকোন

ক্যাটরিনা কাইফ: ফ্রিহ্যান্ড দিয়েই আপাতত কাজ চালান। তবে সেটাকে বাঁধাই করতে ব্যবহার করেন যন্ত্রপাতি (যাকে বলে পিলাত)। সপ্তাহে তিন দিনের বেশি খাটেন না এ সুন্দরী। কার্ডিওর যত্নতেই বেশি নজর তার।

ক্যাটরিনা কাইফ

আলিয়া ভাট: সারাক্ষণ হাসিখুসি এ নায়িকারও পছন্দ হলো জিমে গিয়ে যন্ত্র দিয়ে ব্যায়াম করা। তবে সেটা সপ্তাহে ছয়দিন। আরেক দিন তিনি ‘নিজের’ জন্য রেখেছেন। এ দিন ইচ্ছামতো এটাওটা খাওয়া চলে।

বিপাশা বসু

বিপাশা বসু: গ্ল্যামারে অটুট এ নায়িকার বিশেষত্ব হলো তিনি জিম-পাগল। এমন কোনো ব্যায়াম নেই তা প্র্যাকটিস করেন না। হয়তো এ কারণেই এখনও উপরের আপাত কমবয়সীদের তালিকায় বিপাশাকেও রাখা হয়েছে!

আরো পড়ুন:  ফুটবল বিশ্বকাপ-২০১৮ এর সেরা একাদশ