চক্রান্তের পথে না গিয়ে নির্বাচনে আসুন: বিএনপিকে নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বিএনপিকে আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, চক্রান্তের পথে না গিয়ে নির্বাচনে আসুন। যদি কোন দল নির্বাচনে অংশ না নেয় তাহলে আমরা ধরে নিতে পারি তারা গণতন্ত্রের শত্রু। বিএনপি চায় কিভাবে নির্বাচন ভন্ডুল করা যায়, সেই পায়তারা তারা চালাচ্ছে।

মঙ্গলবার ( ১৭ জুলাই) আওয়ামী লীগের ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, গণতন্ত্রের কথা আমরা যতই মুখে বলি না কেন? যদি কোন দল নির্বাচনে অংশ না নেয় তাহলে আমরা ধরে নিতে পারি তারা গণতন্ত্রের শত্রু।

বিএনপি চায় কিভাবে নির্বাচন ভন্ডুল করা যায় সেই পায়তারায় তারা চালাচ্ছে। গণতন্ত্র হচ্ছে নির্বাচনের অবলম্বন । দেশের গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে হলে অবশ্যই সংবিধানের নিয়ম অনুযায়ী সকল দলকে জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নাসিম বলেন নির্বাচন হচ্ছে রাষ্ট্রের পরিহার্য একটি উপাদান, কে আসবে আর কে আসবে না একান্তই তাদের দলের সিদ্ধান্ত। কেউ যেন এই কোটা আন্দোলন নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে না পারে। এজন্য কোটা সংস্কার কমিটি সদস্যদের কোটা সংস্কার রিপোর্টকে দ্রুত পেশ করার আহ্বান জানান। বিএনপি’র প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম আহ্বান জানিয়ে বলেন কোনো চক্রান্তের পথে না গিয়ে নির্বাচনে আসেন ।

কোটা সংস্কার নিয়ে নাসিম বলেন বিএনপি কোটা সংস্কার নিয়ে মাঠে নেমেছে অনেক দেশেই কোটা আছে। বাংলাদেশে সৃষ্টির পর থেকেই কোটা আছে ইতিমধ্যেই শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন কোটা সংস্কারের ব্যাপারে একটু ধৈর্য্য ধরতে হবে । শেখ হাসিনা তরুণদের জন্য কাজ করেন ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, আগামী ৩০ জুলাই ৩ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২২ জুলাই থেকে ১৪ দল ৩ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলের পক্ষে হয়ে কাজ করবে। ১৪ দল আশা করে খুলনা ও গাজীপুর নির্বাচনের মতো সামনের যে সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হবে এতে নৌকার বিজয় হবে ইনশাআল্লাহ। এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে জনগণ নৌকাকে বিজয়ী করবে

নাসিম বলেন, বাংলাদেশে জঙ্গি দমনের মধ্য দিয়ে শান্তির দিব উপনীত হয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দেশের সার্বিক উন্নয়ন বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশ একটি রোল মডেল হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে বিশ্বে। এ জন্যই ১৪ দলসহ আওয়ামী লীগ জননেত্রী শেখ হাসিনাকে গণ সংবর্ধনার আয়োজন করেছে। ১৪ দল তাতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেবে।

এসময় ১৪ দলের সভায় আরোউপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নওফেল, আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ উপ-দপ্তর সম্পাদক কামরুল ইসলাম