হজ যাত্রা : ৩২ ফ্লাইটে গেছেন ১০ হাজার ৮৭৫ জন

স্টাফ রিপোর্টার ; চলতি বছরের হজ ফ্লাইট কার্যক্রম নির্বিঘ্নে এগিয়ে চলেছে। গত দুদিনে (১৪ ও ১৫জুলাই) কোনো প্রকার বিঘ্ন ছাড়াই ৩২টি ফ্লাইটে মোট ১০হাজার ৮৭৫জন যাত্রী পরিবহন করেছে রাষ্ট্রীয় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদিএয়ারলাইন্স।

এরমধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৮টি ফ্লাইটে সরকারি ব্যবস্থাপনার ৩ হাজার ২৪২ জন, একই এয়ারলাইন্সে ৭টি ফ্লাইটে ২ হাজার ৪শ ১২জন ও সৌদি এয়ারলাইন্সের ১৭টি ফ্লাইটে ৫হাজার ২২১জন ইতোমধ্যেই সৌদি আরব পৌঁছেছেন । ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিগত বছরগুলোতে হজ ফ্লাইট শুরু হতে না হতেই হজযাত্রীর অভাবে একাধিক ফ্লাইট বাতিল হতো। কিন্তু সৌদি সরকারের কঠোর নিয়ম,ধর্ম মন্ত্রণালয়ের তদারকি ও হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) নেতাদের সার্বিক সহযোগিতায় এ বছর এখন পর্যন্ত কোনো ফ্লাইট বাতিল হয়নি। পুরো ফ্লাইট ভর্তি যাত্রী নিয়েই ফ্লাইট সৌদিআরব পৌঁছাচ্ছে।

চলতি বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬ হাজার ৭৯৮ জন ও ৫২৮ হজ এজেন্সির মাধ্যমে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজারজনসহ মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন হজে যাবেন। রাজধানীর আশকোনা হজ অফিসের পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, ইতোমধ্যেই সরকারি ব্যবস্থাপনার ৬ হাজার ৪০৪ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ৪২ হাজার ১৯৩ জনসহ মোট ৪৮ হাজার ৫৯৭ জন হজযাত্রীর ভিসার ডিও ইস্যু করা হয়েছে। আজ (সোমবার) সকাল ৯টা পর্যন্ত সৌদি দুতাবাস থেকে সরকারি ৬ হাজার ৪০৪ জনের সবার ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ৩৮হাজার ৩৮০জনের ভিসা দেয়া হয়েছে। সোমবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৯টি ও সৌদি এয়ারলাইন্সের ১০টিসহ মোট ১৯টি ফ্লাইট হজযাত্রী পরিবহন করবে। মোট ফ্লাইটের মধ্যে বিমানের ১টি ও সৌদি এয়ারলাইন্সের ৩টি সিডিউল ফ্লাইট রয়েছে। বাকি ১৫টি ডেডিকেটেড ফ্লাইট বলে জানা গেছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৯টি ফ্লাইটে আজ ৩ হাজার ৬৯৮ জনের সৌদিআরব যাওয়ার কথা রয়েছে।