ত্বকের ডেডসেল দূর করার উপায়

আমাদের ত্বকের সৌন্দর্য কমে যাওয়া অন্যতম কারণ হচ্ছে ডেডসেল বা মৃত কোষ। খালি চোখে দেখা না গেলেও সারাক্ষণ ডেড স্কিন সেলেরা জমতে থাকে মুখের উপরে। তাই তো সপ্তাহে অন্তত ২-৩ দিন স্ক্রাবার ব্যবহার করা উচিৎ। তবে সেজন্য বাড়তি খরচ করে পার্লারে যেতে হবে না। ঘরে বসেই ঘরোয়া উপাদান দিয়ে তৈরি করতে পারেন এই স্ক্রাব।

আধ কাপ কফি গুঁড়া, আধ কাপ চিনি, ২ চামচ অলিভ অয়েল এবং ৩টি ভিটামিন ই ক্যাপসুলের প্রয়োজন পরবে। এই সবকটি উপাদান মিশিয়ে বানিয়ে নিতে হবে একটি পেস্ট। তারপর সেটি মুখে লাগিয়ে কম করে ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে ধুয়ে ফেলতে হবে। কফিতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। আর চিনি মৃত কোষেদের সরিয়ে ফেলে। ফলে অল্প সময়ে ত্বক সুন্দর হয়ে ওঠে।

সামুদ্রিক লবণে এতে উপস্থিত খনিজ একদিকে যেমন ত্বকের পুষ্টির ঘাটতি দূর করে, তেমনি স্ক্রাবার হিসেবেও দারুণ কাজ করে। শুধু তাই নয়, সামুদ্রিক লবণ নিয়ে মুখে মাসাজ করার সময় ত্বকের অন্দরে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তের সরবরাহও বেড়ে যায়। এই কারণেও ত্বক সুন্দর এবং প্রাণোচ্ছ্বল হয়ে উঠতে সময় লাগে না। এক্ষেত্রে ১ কাপ সামুদ্রিক লবণ, হাফ কাপ অলিভ অয়েল এবং ৫-১৫ ড্রপ এসেনশিয়াল অয়েল নিয়ে সবকটি উপাদান ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে কম করে ১৫ মিনিট মাসাজ করতে হবে। সপ্তাহে ২-৩ বার এইভাবে ত্বকের পরিচর্যা করলে দারুণ উপকার মিলবে।

নারকেল তেল স্ক্রাবার হিসেবে দারুণ কাজে আসে। সেজন্য আধ কাপ নারকেল তেলের সঙ্গে সম পরিমাণ চিনি মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর তা মুখে লাগিয়ে ভালো করে মাসাজ করলেই হবে। মিশ্রণটি দিয়ে ১৫-২০ মিনিট ত্বকের পরিচর্যা করতে হবে। তবেই মিলবে উপকার।

আধ কাপ অলিভ অয়েলের সঙ্গে ১ কাপ ব্রাউন সুগার এবং ১৫ ড্রপ এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নিন। তারপর সেই পেস্ট মুখে লাগিয়ে কম করে ৫-১০ মিনিট মাসাজ করুন। কিছু সময় পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের মরা চামড়া দূর হবে।