চোখ হারানোর ঘটনায় মন্ত্রণালয় দায় এড়াতে পারে না : হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার : চুয়াডাঙ্গায় ইম্প্যাক্ট মাসুদুল হক মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে চক্ষু শিবিরে চিকিৎসা নিতে এসে ২০ জনের চোখ হারানোর ঘটনায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দায় এড়াতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট।

সোমবার এ সংক্রান্ত রুলের শুনানিকালে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন। সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত দুটি প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। কিন্তু দুইটি প্রতিবেদনে দুই ধরনের মতামত দেওয়া হয়েছে।

এ কারণে আদালত ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ড্রাগ অধিদপ্তরের অনুমতি ছাড়া কীভাবে ওষুধ আনলেন? আপনারা জানেন না মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ব্যবহার হচ্ছে? তার মানে আপনাদের নলেজে ছিল। ওষুধ বা অপারেশন যন্ত্রপাতিতে যদি সমস্যা থাকে তাহলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালেয়র অনুমতি ছাড়া এসব দেশে আসে কীভাবে? এটা মানা যায় না। এটা বলে আপনারা দায় এড়াতে পারেন না।

পরে আদালত এ বিষয়ে জারি করা রুলের পরবর্তী শুনানির জন্য মঙ্গলবার পর্যন্ত মুলতবি করেন। আদালতে রিটের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অমিত দাস গুপ্ত। সঙ্গে ছিলেন শুভাষ চন্দ্র দাস। ইম্প্যাক্ট মাসুদুল হক মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।