অবশেষ গোল্ডেন বুট যাচ্ছে হ্যারি হ্যারি কেইন’র হাতেই

ফুলকি ডেস্ক: বেশি না, মাত্র চার গোল করতে হবে। কাজটা করার চ্যালেঞ্জ কিলিয়ান এমবাপ্পে নিতে পারেন। কিংবা আঁতোয়ান গ্রিজমান। বিশ্বকাপ ইতিহাসে ফাইনালে এখন পর্যন্ত হ্যাটট্রিক হয়েছে একবারই। সেটিও ১৯৬৬ সালে। ৯০ মিনিট পর্যন্ত ২-২ সমতায় থাকা ম্যাচে অতিরিক্ত সময়ে জোড়া গোল করেন জিওফ হার্স্ট। তাঁর তিন গোলেই পশ্চিম জার্মানিকে হারায় ইংল্যান্ড।

হার্স্টের কীর্তিকে ছাপিয়ে না গেলে একটা বিষয় নিশ্চিত হয়ে যাচ্ছে। এবারের গোল্ডেন বুট হ্যারি কেইনই জিতবেন। ইংলিশ স্ট্রাইকারের গোল ৬টি। তাঁর সবচেয়ে কাছে ছিলেন রোমেলু লুকাকু। কিন্তু আজ কেইন নিজে দূরত্বটা বানিয়ে নিতে পারেননি, লুকাকুও কমাতে পারেননি ব্যবধান। স্থান নির্ধারণী ম্যাচে বেলজিয়াম ২-০ গোলে ইংল্যান্ডকে হারালেও এ আসরের সর্বোচ্চ দুই গোলদাতা জাল খুঁজে পাননি।

এখন কেইনের সবচেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এমবাপ্পে ও গ্রিজমান। দুজনের গোল তিনটি। এই দুজনের কেউ কিংবা দুজনই তিন গোল করলেও মিনিটের হিসাবে কম খেলার সুবাদে সোনার বুটটি কেইনেরই জেতার কথা।

কেইন হবেন ১৯৮৬ বিশ্বকাপের পর গোল্ডেন বুট জেতা প্রথম ইংলিশ। ম্যারাডোনার আলো ছড়ানোর সেই আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছিলেন গ্যারি লিনেকার। কেইনের ৬ গোলের তিনটিই অবশ্য পেনাল্টি থেকে। আর ৫টি গোলই করেছেন গ্রুপ পর্বে।