ধামরাইয়ে যশোমাধবের রথ উদযাপন

ধামরাই প্রতিনিধি : ধামরাইয়ে উৎসবমূখর পরিবেশে শনিবার বিকেলে ঐতিহ্যবাহী শ্রীশ্রী যশোমাধবের রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলপ্রদীপ জ¦ালিয়ে ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে রথযাত্রার উদ্বোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য এমএ মালেক।

কায়েতপাড়ার রথখোলায় রথের সামনে শনিবার সকালে ঢাকঢোল, বাদ্য, কাঁসর বাজিয়ে এবং নারীদের উলুধ্বনির মধ্যদিয়ে মাধব মন্দিরের প্রধান পুরোহিত উত্তম গাঙ্গুলী ধর্মীয় কৃত্য সম্পন্ন করেন। বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কায়েতপাড়ার মাধম মন্দির থেকে শ্রীশ্রী যশোমাধবসহ  অন্য বিগ্রহগুলো নিয়ে রথের উপর স্থাপন করা হয়। পরে বিকেল সাড়ে পাঁচটায় রথযাত্রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এমএ মালেক।

তিনি সারথী অসিতবরণ গোস্বামীর হাতে রথের প্রতীকি রশি তুলে দেন। ভক্তরা ভারত সরকারের প্রায় কোটি টাকার অনুদানে নির্মিত নবমবারের মত সুসজ্জিত রথটিকে টেনে নিয়ে যান যশোমাধবের কথিত শ^শুড়ালয়ে যাত্রাবাড়ী মন্দির পর্যন্ত। এ সময় হাজার হাজার নারী-পুরুষ চিনি-কলা ছিটিয়ে রথের যশোমাধবের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। যাত্রাবাড়ীর মন্দিরে যশোমাধবের শ^শুড়ালয়ে রথটি থাকবে ৯দিন। এরপর ২২ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে উল্টো রথ।

যশোমাধব মন্দির ও রথ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) জীবন কানাই দাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ধামরাই সরকারি বিশ^বিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ এসএম সিরাজুল ইসলাম, ঢাকা জেলা (উত্তর) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) স্ইাদুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম, থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ রিজাউল হক, আওয়ামী লীগ নেতা শফিক আনোয়ার গুলশান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহাদ্দেস হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম, আমিনুর রহমান, হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ রিজাউল হক জানান, রথ মেলা সফল করতে রথ পরিচালনা কমিটির লোকজনের পাশাপাশি পাঁচশত পুলিশ, র‌্যাব ও আনসার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা সাদা পোশাকে মেলায় নজরদারি চালাচ্ছেন।