দেশকে অস্থিতিশীল করার সুযোগ কাউকে দেওয়া হবে না: ড. হাছান

স্টাফ রিপোর্টার : ‘বিএনপি ও প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি ‘সবকিছুতে ব্যর্থ হয়ে এখন কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর ভর করে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। পরগাছার মতো কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর ভর করে লাভ হবে না। দেশকে অস্থিতিশীল করার সুযোগ কাউকে দেওয়া হবে না’ বলে হুশিয়ার করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যারা জামায়াত-শিবির পরিচয় গোপন করে সাধারণ নাগরিকের ব্যানারে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায় তাদের সহযোগী হিসেবে যারা পাশে দাঁড়িয়ে মদদ যোগায় জনগণ তাদের কঠোরভাবে প্রতিহত করবে।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সারাবিশ্বের নেতৃবৃন্দ যখন শেখ হাসিনার প্রশংসা করে, এই অবস্থায় একটি পক্ষ দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। ২০১৩-১৫ সালে তারা পেট্রোল বোমা দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তারা রংপুরের নির্বাচনের পর দেশের পরিস্থিতি ঘোলাটে করার অপচেষ্টা চালিয়েছে। সবশেষ গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পরেও দেশকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা চালিয়েছে। সবকিছুতে ব্যর্থ হয়ে এখন কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের ওপর ভর করে দেশকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা দেখতে পেলাম সাধারণ নাগরিক ও উদ্বিগ্ন অভিভাবকের ব্যানারে কিছু চিহ্নিত লোক প্রেসক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন করেছে। আমি আপনাদের কাছে প্রশ্ন করতে চাই যখন দেশে জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে, তখন আপনারা কোথায় ছিলেন? তখন আপনারা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন নাই কেন? বিএনপি যখন তাদের গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করে ৭ ধারা বাতিল করে দুর্নীতিবাজদের দলে পুনর্বাসনের জায়গা করে দেয় তখন আপনারা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন নাই কেন? আপনারা আসলে দেশে আগুন জ্বালাতে চান। আগুন জ্বালাতে যারা চাচ্ছে তাদেরকে দেয়াশলাই দিয়ে সাহায্য করতে চান। কিন্তু সেই সুযোগ কাউকে দেয়া হবে না।’ সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘যখন সারা বিশ্বের নেতৃবৃন্দ শেখ হাসিনার প্রশংসা করে এই অবস্থায় একটি পক্ষ দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। ২০১৩-১৫ সালে তারা পেট্রোল বোমা দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তারা রংপুরের নির্বাচনের পর দেশের পরিস্থিতি ঘোলাটে করার অপচেষ্টা চালিয়েছে। সর্বশেষ গাজীপুরের নির্বাচনের পরেও দেশকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা চালিয়েছে।’