এক ফেসবুক পোস্টেই আট বছরের জেল

ফুলকি ডেস্ক : ফেসবুকে শ্লীতাহানির বিতর্কিত ভিডিও পোস্ট দেয়ায় লেবাননের নারী পর্যটককের আট বছরের জেল দিল মিশরের একটি আদালত। প্রথমে ১১ বছরের জেল দিলেও এক ঘণ্টার মাথায় এ সাজা তিন বছর কমিয়ে আট বছরে আনা হয়। মিশরের ইতিহাসে এ ধরণের সাজা খুবই বিরল। ভিডিও পোস্টের মাধ্যমে ওই তরুণী মিশরের জনগণ ও ধর্মকে অবমাননা করেছেন বলে অভিযোগ আনা হয়। খবর: আল আরাবিয়া

মিশরের প্রসিকিউশন কর্মকর্তারা বলেন, সাজাপ্রাপ্ত ওই নারীর আইনজীবী ২৯ জুলাই পর্যন্ত তার মক্কেলের সাজা আপিল আদালতে চ্যালেঞ্জ করার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রসিকিউটর জেনারেল তাকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া ও কঠিন শাস্তি দেওয়ার নির্দেশ দেন। শাস্তি শেষ হওয়ার পরই তাকে দেশে পাঠানো হবে বলে জানান। এরআগে ওই তরুণী মিনা মাজবুহ মিশর ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মিনা মাজবুহকে অচিরেই ফৌজদারি আদালতে উপস্থাপন করা হবে।

২৪ বছর বয়সী তরুণী মিনা মাজবুহ ভিডিও’র মাধ্যমে অভিযোগ আনেন, তাকে মিশরের রাস্তায় একজন টেক্সি ড্রাইভার ও একজন যুবক শ্লীতাহানি করেন এবং পবিত্র রমজান চলাকালীন সময়ে একটি রেস্টুরেন্টে তার কাছ থেকে অর্থ চুরি হয়েছিল বলে অভিযোগ আনেন।