স্বামীর জন্য মুসলমান হয়েছিলাম, ছেলের জন্য মুসলমানই থাকব: অপু

বিনোদন ডেস্ক : অপু-শাকিবের বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে। তবে ছোট্ট আব্রাম এখন মা অপুর কাছেই থাকে। তবে ভালোই কাটছে মা অপু বিশ্বাস ও ছেলে আব্রামের জীবন, এমন খবর দেশের একটি দৈনিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের মতো তাদের একমাত্র ছেলে আব্রাম খান জয়ও ধীরে ধীরে বড় হয়ে উঠছে। আর কয়েক বছর পরই সে বাস্তবতা ব্ঝুতে শিখবে। সে তার বাবা-মায়ের বাস্তবতাও বুঝবে। সম্প্রতি গণমাধ্যমে অপু বিশ্বাস জানান, তিনি মুসলমানই থাকবেন। এর একমাত্র কারণ তার ছেলে জয়। তিনি বলেন, আমি স্বামীর জন্য মুসলমান হয়েছিলাম। যদিও এখন স্বামী নেই, অনেকে নিজ ধর্মে ফিরে যায়। কিন্তু আমি মুসলমানই থাকব। বারবার ধর্ম পরিবর্তন করতে পারব না। আমি ইসলাম বিশ্বাস করেই এ ধর্ম পালন করি।

তিনি আরো বলেন, ছেলে আব্রাম খান যখন বড় হবে, তখন ওর বাবার ধর্ম একটি হবে, আর মায়ের ধর্ম আরেকটি- ছেলে কনফিউশনে পড়ে যাবে। ওকে সব জায়গায় প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হবে। এ পরিস্থিতিতে ওকে আমি ফেলতে চাই না। সংসার বাঁচাতে আমি আমার দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ারও বিসর্জন দিয়েছি। এটি করেও শাকিবের থেকে কোনো সাড়া পাইনি। অনেক আশা করেছিলাম, হয়তো একসময় শাকিব তার ভুল বুঝতে পারবে। বাবা হিসেবে অন্তত ছেলের জন্য হলেও ফিরে আসবে। কিন্তু সেটি হয়নি।

অপু বলেন, মানুষের ভালোবাসা আমার বেঁচে থাকার প্রেরণা। আমার সন্তানই এখন আমার সব। ওকে মানুষের মতো মানুষ করে গড়ে তোলাই আমার একমাত্র কাজ। আমরা মা-ছেলে ভালোই আছি। আল্লাহ আমাদের ভালো রেখেছেন।

প্রসঙ্গত, ঢালিউডের সর্বকালের সেরা জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। প্রায় ৩০০টির মত সিনেমায় জুটি বেধে অভিনয় করেছেন এই তারকাদ্বয়। তাদের ভাষায় পৃথিবীর ইতিহাসে এতোগুলো সিনেমায় জুটি বেধে কোন তারকাই অভিনয় করতে পারেননি।

উল্লেখ্য, গত বছর ২২ নভেম্বর শাকিব খান তার আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের মাধ্যমে অপুর কাছে তালাকের নোটিশ পাঠান। একই সঙ্গে তিনি শাকিব খানের পক্ষে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র কার্যালয়, অপু বিশ্বাসের ঢাকার নিকেতনের বাসা এবং বগুড়ার ঠিকানায়ও তালাকের এই নোটিশ পাঠান। গত ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনে বিয়ে করেন বাংলাদেশি ছবির জনপ্রিয় জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় তাদের সন্তান আব্রাম খান জয়। শাকিব-অপু দুজনেই সন্তানের জন্মের বিষয়টি গোপন রাখেন। ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিলে একটি টিভি চ্যানেলের সরাসরি অনুষ্ঠানে এসে বিয়ে ও সন্তানের খবর ফাঁস করেন অপু বিশ্বাস। এ সময় তার সঙ্গে ছিল ছয় মাস বয়সী ছেলে আব্রাম। সেদিন অপু বলেন, ‘আমি শাকিবের স্ত্রী, আমাদের ছেলে আছে।’ সেদিন বিয়ের খবর জনসমক্ষে আসার পর দুজনের সম্পর্কের টানাপোড়েন তৈরি হয়। পরিস্থিতি এমন অবস্থায় পৌঁছায় যে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস নিজেদের মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ করে দেন। শুধু ছেলে আব্রামের কারণে মাঝেমধ্যে দেখা হলেও কথা হয়নি দুজনের। গত বছর ২২ নভেম্বর শাকিব খান তার আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের মাধ্যমে অপুর কাছে তালাকের নোটিশ পাঠান। গত ১২ মার্চ সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে শাকিব-অপু তারকা দম্পতির আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। এর আগে ১২ জানুয়ারি ও ১২ ফেব্রুয়ারি তাদের ডাকা হয়। ১২ জানুয়ারি অপু বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন। অন্য দুটি তারিখে শাকিব আসেননি। আর শাকিব খান কোনো তারিখেই উপস্থিত হননি। তাই নিয়ম অনুসারে সময়সীমা ৯০ দিন উত্তীর্ণ হওয়ায় সালিস মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে।