ময়মনসিংহে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

ময়মনসিংহ সংবাদদাতা : ময়মনসিংহ জেলার সদর উপজেলার শম্ভুগঞ্জ এলাকায় গোয়েন্দা পুলিশ ডিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে বাচ্চু ওরফে ভেবেল বাচ্চু (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

পুলিশ বলছে, নিহত ওই ব্যক্তি শম্ভুগঞ্জ এলাকার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও একা‌ধিক মামলার আসামি ছিলেন। তবে ভেবেল বাচ্চুর নামে মাদকের ১৫ টিরও বেশি মামলা রয়েছে।

এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কনস্টবল সেলিম ও রাশেদসহ ২ জন গুরুতর আহত হয়। আহত পু‌লিশ সদস্যদের পুলিশ হাসপাতালে চি‌কিৎসা দেওয়া হ‌চ্ছে।

মঙ্গলবার (৩ জুলাই ) ভোররাত ৩টার দিকে শহরতলীর শম্ভুগঞ্জের চৈতলামারি এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

জেলা গো‌য়েন্দা পুলিশের ওসি মো. আশিকুর রহমান এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ওসি মো. আশিকুর রহমান জানান, মঙ্গলবার ভোররাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার শম্ভুগঞ্জ এলাকার কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ আঞ্চলিক মহাসড়কের দক্ষিণ পাশে চৈতলামারি গ্রামের জনৈক নয়নের অটোরাইস মিলের বাউন্ডারির উত্তরে পাশে ক‌তিপয় মাদক ব্যাবসায়ীরা মাদক ভাগাভা‌গি ক‌রছিল। পরে এমন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ডিবি ওসির নেতৃ‌ত্বে অভিযান প‌রিচালনা করতে ওই এলাকায় পৌঁছে ডিবির একটি চৌকশ টিম। তখন অভিযান চলাকালে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডিবি পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট, পাট‌কেল নি‌ক্ষেপসহ এলোপাথারি গু‌লি বর্ষণ শুরু ক‌রেন।

তিনি আরও জানান, পরে ওই সময় ডিবি ওসির নির্দেশে ডিবি পুলিশের একটি চৌকশ টিম আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। তখন উভ‌য় পক্ষ্যের ম‌ধ্যে গোলাগু‌লির এক পর্যা‌য়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পলিয়ে যায়। এসময় এলাকা তল্লাশি করে শীর্ষ মাদক সম্রাট ও একা‌ধিক মামলার আসামি বাচ্চু ওরফে ভেবেল বাচ্চু (৪৫) কে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মাটিতে পরে থাকতে দেখা যায়। পরে দ্রুত তাকে গুরতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে আনা হলে, কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত ভেবেল বাচ্চুকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আশিক আরও জানান, এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কনস্টেবল সেলিম ও রাশেদসহ ২ জন গুরুতর আহত হয়। আহত পু‌লিশ সদস্যদের হাসপাতালে চি‌কিৎসা দেওয়া হ‌চ্ছে। নিহত আসামি বাচ্চু ওরফে ভেবেল বাচ্চুর নামে ১৫ টিরও বেশি মাদক মামলা রয়েছে। এদিকে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে ২০০ পিস ইয়াবা, ৪ টি গু‌লির খোসা উদ্ধার করা হয়। ওসি আরো জানান, এ বিষয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় অজ্ঞাত আসামি‌দের বিরু‌দ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।