বিশ্বকাপের অর্ধেক সময় হেটেই বেড়িয়েছেন মেসি

ফুলকি ডেস্ক: শিরোপা জয়ের স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বকাপে আসলেও শেষ ষোলতেই বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ হয়েছে আর্জেন্টিনার। দলের হয়ে লিওনেল মেসি ছিলেন অনেক নিস্প্রভ। অথচ মেসিকে ঘিরেই শিরোপা জয়ের স্বপ্ন বুনেছিলো আলবিসেলেস্তেরা। পুরো বিশ্বকাপজুড়েই মেসি যেন ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। রাশিয়া বিশ্বকাপের চার ম্যাচের বেশিরভাগ সময় হেঁটে বেড়িয়েছেন এই বার্সেলোনা তারকা।

এই বিশ্বকাপে মেসি গোল করেছেন একটি, করিয়েছেন দুইটি। গোল মুখে শট করেছিলেন মোট ১৮টি, যার ১১টিই তিনি করেছিলেন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে তিনি শট করেছিলেন মাত্র একটি, নাইজেরিয়ার বিপক্ষে দুইটি ও ফ্রান্সের বিপক্ষে তিনটি। তার নেয়া শট গুলোর ১২টি ছিল লক্ষ্যভ্রষ্ট।

মাঠে মেসির সফল পাশের হার ৯০ ভাগেরও কম। সেই সঙ্গে যোগ হয়েছে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে পেনাল্টি মিস।

রাশিয়া বিশ্বকাপের তিন ম্যাচে এই তারকা বল পায়ে দৌড়েছেন ৩১ হাজার ৬১৮ মিটার। যার মধ্যে ৮হাজার ৫০০ মিটার দৌড়েছেন নাইজেরিয়ার বিপক্ষেই। বাকি তিন ম্যাচের কোনটিতেই ৭ হাজার মিটারের বেশি মাঠ কভার করতে পারেননি এই ফুটবলার।

মোট দৌড়ানো পথের ৫৮ ভাগে মেসির গতি ছিল ঘণ্টায় শূণ্য থেকে ৭ কিলোমিটার। যাকে ধরা যায় হাঁটার গতি হিসেবেই। ২৫ ভাগ সময়ে তার গতি ছিল সাত থেকে ১৫ কিলোমিটারের গতিতে। ঘণ্টায় ২৫ কিলোমিটারের বেশি গতিতে তিনি দৌড়েছেন মাত্র ৬১২ মিটার।

হিট ম্যাপর মাধ্যমে মাঠে মেসির অবস্থান বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, আর্জেন্টিনার পায়ে বল থাকলেই কেবল সক্রিয় ছিলেন তিনি। অন্যান্য সময় তিনি ছিলেন খুবই স্থিতিশীল।

মেসিকে ঘিরেই সব পরিকল্পনা সাজায় আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপে মেসি দেখাতে পারেননি নিজের জাদু। ফলে ব্যর্থ হয়েছে আর্জেন্টিনা দলও।