ঈদযাত্রার ৩৩৫ দুর্ঘটনায় নিহত ৪০৫

বিশেষ প্রতিনিধি: এবার রোজার ঈদে সড়ক, রেল ও নৌপথ মিলিয়ে এবার ঈদে মোট ৩৩৫টি দুর্ঘটনা ঘটেছে; তাতে ৪০৫ জন নিহত এবং এক হাজার ২৭৪ জন আহত হয়েছেন। যার মধ্যে সড়ক-মহাসড়কে ২৭৭টি সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ৩৩৯ জন নিহত এবং এক হাজার ২৬৫ জন।

শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সমিতির মহাসচিব মো.মোজাম্মেল হক চৌধুরী তাদের সড়ক দুর্ঘটনা মনিটরিং সেলের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘এবার ঈদের আগে সব তদারকি সংস্থার সক্রিয় অবস্থানের কারণে ঈদযাত্রা খানিকটা স্বস্তিদায়ক হলেও ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফেরার পথে তদারকি না থাকায় সড়ক দুর্ঘটনা, প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে।’

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, ঈদযাত্রা শুরুর দিন, অর্থাৎ গত ১১ জুন থেকে ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফেরার সময় গত ২৩ জুন পর্যন্ত ২৭৭টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৩৯ জন নিহত এক হাজার ২৬৫ জন আহত হন। একই সময়ে নৌপথে ১৮টি দুর্ঘটনায় ২৫ জন নিহত, ৫৫ জন নিখোঁজ ও ৯ জন আহত হয়েছেন।

এছাড়া রেল পথে ট্রেনে কাটা পড়ে ৩৫ জন, ট্রেনের ধাক্কায় চার জন এবং ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে দুই জনসহ ৪১ জন নিহত হয়েছেন বলে জানান মোজাম্মেল।

এছাড়া প্রতিবেদনে দূর্ঘটনারোধে কিছু পর্যবেক্ষণ ও সুপারিশ মন্তব্য করা হয়েছে।

এসময় সম্প্রতি দূর্ঘটনা রোধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া নির্দেশনাকে স্বাগত জানান বাংলাদেশ যাত্রীকল্যান সমিতির মহাসচিব।

তিনি বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেসব নির্দেশনা দিয়েছেন তা আমলে নিয়ে দ্রুত বাস্তবায়ন করা গেলে সড়কে মৃত্যুর যে গণমিছিল চলছে তা থামানো সম্ভব হবে বলে আমরা মনে করি।”