অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাজ্য

বাংলাদেশের বিস্ময়কর অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও পরিবর্তনের ভূয়সী প্রশংসা করে যুক্তরাজ্য বলছে, দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান প্রগাঢ় বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে একসঙ্গে কাজ করবে দেশটি। যুক্তরাজ্যের এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিষয়ক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড বলেন, অর্থনৈতিকভাবে বাংলাদেশের বিস্ময়কর যে অগ্রগতি ও পরিবর্তন সাধিত হয়েছে তা দেখে আমি খুবই অনুপ্রাণিত। শুক্রবার ঢাকায় ব্রিট্রিশ হাই কমিশনারের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন মার্ক ফিল্ড। তিন দিনের সফরে আজই ঢাকায় পৌঁছান তিনি। রোহিঙ্গা পরিস্থিতি, বাণিজ্য ও দ্বিপাক্ষিক নানা ইস্যুতে আলোচনা করতে তার এই সফর। রোহিঙ্গাদের দুর্দশা নিজ চোখে দেখতে ও তাদের সঙ্গে কথা বলতে আশ্রয়কেন্দ্রেও তার যাওয়ার কথা রয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

ব্রিটিশ মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের আসন্ন সংসদ নির্বাচন যেন অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক হয় সেই প্রত্যাশা করেন তিনি। নির্বাচনের পর যে সরকার গঠিত হবে, তাতে জনমতের প্রতিফলন ঘটবে বলেও আশা তারা।

মার্ক ফিল্ড বলেন, নিবাচন যাতে অংশগ্রহণমূলক হয় সেজন্য যুক্তরাষ্ট্রে বিএনপির প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছেন তিনি।

অংশগ্রহণমূলক একটি নির্বাচন অনুষ্ঠানে সব দল ভূমিকা রাখবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি। ইউএনবি।