সাভারে ডিবি পুলিশের কাছ থেকে মাদক মামলার আসামীর পলায়ন, অত:পর আটক

ইমদাদুল হক : সাভারে ঢাকা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ উত্তর (ডিবি)-এর কাছ থেকে এক মাদক মামলার আসামী পালিয়েছিলো। পরে তাকে দ্রুত দৌঁড়ে গিয়ে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টারদিকে।

জানা যায়, বাজার বাসস্ট্যান্ডে সাভার নিউ মার্কেটের দক্ষিণপাশে ওভার ব্রীজের নীচে আদালতের উদ্দেশ্যে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে আসামীদের উঠিয়ে দেওয়ার অপেক্ষাকালে হ্যান্ডকাফ খুলে পলায়ন করে মাদক ব্যবসায়ী গিট্টু রাজু। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ওই আসামীর পিছু ধাওয়া করে প্রায় ৪শ’ গজ দূরে চাপাইনরোডের ৭তলা ভবনের সামনে থেকে তাকে আটক করতে সক্ষম হয়। মাদক ব্যবসায়ী গিট্টু রাজুকে ডগরমোড়া এলাকা থেকে মঙ্গলবার রাতে ডিবি পুলিশ আটক করেছিলো। গিট্টু রাজু ডগরমোড়া এলাকার ভাড়াটিয়া তাহের মিয়ার ছেলে। তাহের মিয়া ডগরমোড়া এলাকায় ভাড়া থেকে রড মিস্ত্রির কাজ করে। গিট্টু রাজুর বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার পাশাপাশি এলাকায় চুরি ছিনতাইয়ের রয়েছে। ডিবি পুলিশের ঢাকা জেলা উত্তরের ওসি এফ এম সায়েদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১২টারদিকে ডিবি পুলিশের সদস্যরা আটককৃত ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে কোর্টে চালান করার উদ্দেশ্যে সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডের নিউ মার্কেটের পাশে পুলিশ প্রিজন ভ্যানে উঠিয়ে দেওয়া জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। এসময় তিনজন আসামীর মধ্যে গিট্টু রাজু নামের মাদক মামলার আসামী ডিবি পুলিশের ব্যবহারকৃত হ্যান্ডকাফটি কৌশলে খুলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এসময় ডিবি পুলিশের কয়েকজন সদস্যা ওই আসামীর পিছু ধাওয়া করে চাপাইনরোডের সাততলা মোড়ের সামনে থেকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরে পুলিশ ক্ষোভে ওই আসামীকে নিউ মার্কেটের সামনে এনে পাইপ দিয়ে পিটিয়ে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে উঠিয়ে দেয়।

এ ব্যাপারে সাভার নিউ মার্কেটের সামনে মুচি বাবলা জানায়, সিভিল পোশাকে পুলিশ ৩ জন আসামীকে নিয়ে ওভারব্রীজের সামনে দাঁড়ায়। এসময় এক আসামী পুলিশের হ্যান্ডকাফ খুলে চাপাইন রাস্তা দিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় তার পিছু নিয়ে কয়েকজন পুলিশ দৌঁড়ে গিয়ে কিছুক্ষণ পর তাকে আটক করে নিয়ে আশে। পরে ওভার ব্রীজের সামনে রেখে তাকে পাইপ দিয়ে পিটায়। পরে পুলিশ ভ্যানে উঠিয়ে দেয়।

এ ব্যাপারে ঢাকা জেলা (উত্তর) গোয়েন্দা পুলিশের ওসি এফ এম সায়েদ দৈনিক ফুলকিকে নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ ভ্যানে উঠিয়ে দেওয়ার জন্য তিনজন আসামীকে নিউ মার্কেটের সামনে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় একজন আসামী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলো। তবে তাতক্ষণিকভাবে তাকে আটক করে পুলিশ প্রিজন ভ্যানে উঠিয়ে দিয়ে কোর্টে সোর্পদ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।