জার্মানির দ্বিতীয় রাউন্ড ভাগ্য ঝুলে আছে জটিল সমীকরণে

ফুলকি ডেস্ক: ফেবারটিদের মধ্যে একে একে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করে ফেলেছে স্পেন, পর্তুগাল, ফ্রান্স এবং আর্জেন্টিনা। বাকি রয়েছে জার্মানি, ব্রাজিল। বেলজিয়াম, ইংল্যান্ডও এক ম্যাচ হাতে রেখে নিশ্চিত করেছে দ্বিতীয় রাউন্ড। ঝুলে আছে ৫ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল এবং ৪ বারের ও বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানির ভাগ্য।

দু’দলই মাঠে নামছে আজ। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় কাজান এরেনায় দক্ষিণ কোরিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে জার্মানি এভং রাত ১২টায় মস্কোর স্পার্টাক স্টেডিয়ামে সার্বিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার পাওয়ার হাউজদের সামনে কিছুটা সহজ রাস্তা। ড্র করলেও দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হয়ে যাবে তাদের।

কিন্তু সবচেয়ে জটিল সমীকারণের মুখে রয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। ‘এফ’ গ্রুপ থেকে ইতিমধ্যেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে এশিয়ান দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার। বাকিদের মধ্যে টানা দুই ম্যাচ জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে মেক্সিকো। যদিও দ্বিতীয় রাউন্ড এখনও নিশ্চিত হয়নি মেক্সিকানদের।

গ্রুপের শেষ দুটি ম্যাচে মুখোমুখি জার্মানি-দক্ষিণ কোরিয়া এবং সুইডেন-মেক্সিকো। এই দুই ম্যাচেই নির্ধারিত হয়ে যাবে দক্ষিণ কোরিয়ানদের সঙ্গে বিদায় নেবে কোন দল। সে ক্ষেত্রে জার্মানিই রয়েছে এখন সবচেয়ে বড় ঝুঁকিতে। ড্র করলেও টিকে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে তাদের। তখন জার্মানদের তাকিয়ে থাকতে হবে মেক্সিকো-সুইডেন ম্যাচের দিকে। কারণ, ওই ম্যাচে যদি সুইডিশরা হেরে যায় মেক্সিকোর কাছে, তাহলে জার্মানিকে ড্র’ও তুলে দিতে পারবে পরের রাউন্ডে।

আবার দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে জিতলেও জার্মানির বিদায়ের সম্ভাবনা প্রবল। কারণ, মেক্সিকোর সঙ্গেও যদি সুইডেন জিতে যায়, তাহলে তিন দলেরই পয়েন্ট হয়ে যাবে সমান ৬ করে। সে ক্ষেত্রে গোল ব্যবধানের হিসেব আসবে। এই হিসেবে কোনোভাবে যদি মেক্সিকো, সুইডেনের চেয়ে পিছিয়ে যায় জার্মানরা, তাহলে বিদায় নেবে তারাই। এ কারণে, দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে অন্তত ২ গোলের ব্যবধানে জিততে চায় জার্মানরা। দলটির কোচ জোয়াকিম লো সেটাই প্রত্যাশা করেছেন। তবে, দক্ষিণ কোরিয়াকে জার্মানরা না শেষ ম্যাচে গোলের বন্যায় ভাসায়, সেটাই দেখার বিষয়।

প্রথম দুই ম্যাচে টানা জয় পেলেও মেক্সিকোর বাদ পড়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। সুইডেনের কাছে তারা যদি কোনোভাবে হেরে যায়, তাহলে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। কারণ, এখন মেক্সিকোর ২ গোল প্লাস। সুইডেনের কাছে ১-০ গোলে হারলে তাদের প্লাস হবে ১ গোলের। তখন সুইডেনের গোল ব্যবধানও হবে প্লাস ১। সে ক্ষেত্রে হেড টু হেড বিবেচনায় আসবে। তখন, মেক্সিকোই থাকবে পিছিয়ে। সুতরাং, মেক্সিকানদের ড্র করা ছাড়া কোনো উপায় নেই।

অর্থ্যাৎ, এফ গ্রুপে জার্মানি, সুইডেন এবং মেক্সিকো- তিন দেশই রয়েছে তুমুল ঝুঁকিতে। যে কোনো কিছু ঘটে যেতে পারে। বিদায় নিতে পারে যে কোনো শক্তিশালী দেশ।