চাকরিতে ঢোকার বয়স ৩৫ বছর করার সুপারিশ

ফুলকি ডেস্ক: সরকারি চাকরি চাকরি লাভের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩৫ বছর করার করার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

আজ বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সরকারকে এ সুপারিশ করা হয় বলে সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বর্তমানে সরকারি চাকরিতে ঢোকার সর্বোচ্চ বয়স ৩০ বছর। ২০১১ সালে সরকারি কর্মকর্তাদের অবসরের বয়সসীমা দুই বছর বাড়ানোর পর চাকরি লাভের বয়স সীমা বাড়ানোরও দাবি ওঠে চাকরি প্রত্যাশী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে।

তারা যুক্তি দেখায়, সরকারি নিয়ম অনুসরণ করে বেসরকারি ব্যাংকসহ বহুজাতিক কোম্পানিগুলোও ৩০ বছরের বেশি বয়সীদের নিয়োগ দেয় না বলে বেসরকারি ক্ষেত্রেও চাকরির সুযোগ সঙ্কুচিত হয়ে আসছে।

কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় জানানো হয়, চাকরিতে ঢোকার বয়সসীমা বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা নেই।

কিন্তু সংসদীয় কমিটি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে চাকরিতে ঢোকার বয়সসীমা বাড়িয়ে ৩৫ বছর করার পাশাপাশি অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে বাড়িয়ে ৬৫ বছর করার ব্যবস্থা করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলেছে।