গাড়ি চালাতে গিয়ে বঞ্চনার শিকার সৌদি নারী!

ফুলকি অনলাইন: দীর্ঘদিন গাড়ির পেছনের আসনে বসেছেন সৌদি নারীরা। বহুদিনের সংগ্রামের পর গাড়ির স্টিয়ারিং ধরেছেন। দেশটির নারীরা প্রথমবার গাড়ি চালানোর সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত। তবে নারী গাড়িচালকদের প্রতি পুরুষদের টিটকারির হার বেড়েছে।

গাড়ি নিয়ে রাস্তায় নামার স্বাধীনতা থাকলেও বর্তমানে এটিই একটি বড় বাধা। রাস্তায় রাস্তায় পুরুষের মুখে শুনতে হচ্ছে- দেখ দেখ! নারী ড্রাইভার! এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো চালকের আসনে নারী আর পেছনে যাত্রীর আসনে পুরুষের ভিডিও (তাচ্ছিল্য করে) দিয়ে ঠাসা। খবর এএফপির।

লিঙ্গবৈষম্যপূর্ণ পুরুষশাসিত সৌদি সমাজে একজন নারীর গাড়ি চালানোর বিষয়টি একেবারেই নতুন। নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর রোববার থেকে নিষেধাজ্ঞা ওঠে গেছে। নারীরা দীর্ঘদিন পর গাড়ি চালানোর অধিকার পেয়ে সৌদি আরবের শহরে শহরে গাড়ি চালাচ্ছেন। নারী গাড়িচালকদের লক্ষ্য করে পুরুষদের মন্তব্য ‘দেখ দেখ! নারী গাড়িচালাক!’ বাক্যটি এখন ব্যাপক ব্যবহৃত হচ্ছে।

এখন সৌদির রাস্তাগুলোয় প্রায়ই নারী-পুরুষের দ্বন্দ্ব দেখা যাবে। নারীরা গাড়ি চালানোর ব্যাপারে কিছুতেই ছাড় দেবে না। অধিকাংশ পুরুষই এটা মেনে নিতে পারছে না। নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর প্রথম দুই দিনে প্রকাশ্যে নারীদের হয়রানির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

তবে কর্তৃপক্ষের কড়া সতর্কতা সত্ত্বেও পুরুষ চালকরা তাদের সঙ্গে আক্রমণাত্মক ও বিরোধপূর্ণ আচরণ করছেন। সৌদি আরবের এক টুইটার ব্যবহারকারী ব্যঙ্গ করে বলেন, ‘নারী গাড়িচালকদের গাড়ির নিচে পিষ্ট হওয়া এড়াতে আমি পুরুষদের ঘরে থাকার পরামর্শ দিচ্ছি।’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় নারী গাড়িচালকদের দ্বারা ব্যাপক দুর্ঘটনার আশঙ্কা করে বিপুল সংখ্যক মানুষ মন্তব্য করেছে।

এসব মন্তব্যের সঙ্গে জ্বলন্ত গাড়ির ছবি জুড়ে দেয়া হচ্ছে। কোনো কোনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারী ব্যঙ্গ করে নারীদের গাড়ি চালানোর সময় মেকআপ না করার পরামর্শ দিয়েছে। অনেকে নারীদের গাড়ি ও পার্কিং লটগুলো গোলাপি রঙের হবে বলে মন্তব্য করেছে। বহু নারী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পুরুষদের আক্রমণের জবাব দিয়েছেন।

সৌদি আরবের একটি দৈনিক পত্রিকা জানিয়েছে, ‘নারীদের ব্যঙ্গ করে এবং তাদের গাড়ি চালানোর দক্ষতাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে করা বার্তায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো সয়লাব হয়ে গেছে।’ নারীদের পক্ষ থেকে সেখানে বলা হয়েছে, ‘আমরা গাড়ি চালাব এবং পুরুষদের চেয়েও ভালো চালাব।